পৃথিবীর প্রাচীনতম পানি!

আদিমতম পানি? সেটাই বা হয় কী করে! প্রাচীন মমি হয়, পুরাকীর্তি হয়, ধ্বংসাবশেষ হয়। কিন্তু এবার প্রাচীনতম পানি আবিষ্কার করেছেন বিজ্ঞানীরা।

তারা বলছেন, একশ` বা দুইশ` বছর নয়, আনুমানিক ২৫০ কোটি বছর আগের পানি পাওয়া গেছে। এই পানির অস্তিত্ব পাওয়া গেছে কানাডার একটি খনিতে। ভূপৃষ্ঠ থেকে তিন কিলোমিটার গভীরতায় এ পানির অবস্থান নির্ণয় করেছেন কানাডার টরেন্টো বিশ্ববিদ্যালয়।

বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, এ পানির স্তর প্রায় ২০০ কোটি বছর আগেকার, যা এখনো একটি নির্দিষ্ট এলাকাজুড়ে রয়েছে বদ্ধ জলাশয়ের মতো। এটিই পৃথিবীর `আদিমতম জল`।
তবে ভূতত্ত্ববিদদের বিশ্বাস, এ পানি এখনো টিকে রয়েছে আদিমতম অণুজীবকে ঘিরে। যাদের সম্পর্কে তেমন কিছু জানা যায়নি। পৃথিবীতে পানির অস্তিত্ব মেলে তার সৃষ্টির পরই। পৃথিবীর বয়স এখন ৪৫৪ কোটি বছর বলে মনে করছেন গবেষকরা।

এখন প্রশ্ন উঠতে পারে, `প্রাচীনতম পানি` বিবেচনা করা হয় কী করে? প্রশ্ন ওঠাটাই স্বাভাবিক। বিজ্ঞানীরা বলছেন, পানির আইসোটোপ থেকেই এই বিষয়টি নির্ণয় করা সম্ভব। পাশাপাশি আরো কিছু বিষয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেই এটা আমরা নির্ধারণ করি।

ওই টিমের অলিভার ওয়ার নামে একজন বলেন, এখানে যে পানি পেয়েছি, এর সবকিছুই নতুন, অভিনব। এই পানির আইসোটোপে যা দেখেছি, অন্য কোথাও এমনটা দেখিনি।

আমেরিকান জিওফিজিক্যাল ইউনিয়নও এর সত্যতা নিশ্চিত করেছে।

You Might Also Like