তিউনিশিয়ার ড্রোন বিশেষজ্ঞকে মোসাদই হত্যা করেছে: রিপোর্ট

ইহুদিবাদী ইসরাইলের গুপ্তচর সংস্থা মোসাদ তিউনিশিয়ার একজন ড্রোন বিশেষজ্ঞকে হত্যা করেছে বলে ইসরাইলেরই একজন অনুসন্ধানী সাংবাদিক প্রমাণ তুলে ধরেছেন। ফিলিস্তিনের ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের পক্ষে কাজ করা বিশেষজ্ঞ মোহাম্মাদ জাউয়ারি গত ১৫ ডিসেম্বর তিউনিশিয়ায় নিজ বাসভবনের বাইরে আততায়ীর গুলিতে নিহত হন।

ওই হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে বিস্তারিত অনুসন্ধানের পর ইসরাইলের চ্যানেল ১০-এর সাংবাদিক অ্যালন বেন ডেভিড সোমবার ইহুদিবাদী দৈনিক মারিভে একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশ করেন। এতে তিনি বলেন, মোসাদের একজন নারী গুপ্তচর সাংবাদিক সেজে জাউয়ারির কাছে যান এবং তাকে হত্যার ক্ষেত্র তৈরি করেন।

ডেভিড তার প্রতিবেদনে বলেন, মোসাদের ওই গুপ্তচর জাউয়ারির কয়েকটি সাক্ষাৎকার গ্রহণ করে নিজেকে তার কাছে বিশ্বাসযোগ্য প্রমাণ করেন। এরপর তার চূড়ান্ত সাক্ষাৎকার গ্রহণের দিন-তারিখ ঠিক হয়। কিন্তু সেই দিন-তারিখে ওই নারী গুপ্তচরের পরিবর্তে মোসাদের কিডন ইউনিটের দুই পুরুষ গুপ্তচর জাউয়ারির সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যায়। তারা দু’জন মিলে তিউনিশিয়ার ড্রোন বিশেষজ্ঞকে হত্যা করে।

ইসরাইলি সাংবাদিক ডেভিড তার অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে বলেন, জাউয়ারিকে হত্যার জন্য সাক্ষাৎকার গ্রহণের যে প্রলোভন ব্যবহার করা হয়েছে তা মোসাদের জন্য মোটেই নতুন কোনো কৌশল নয়। ৪৯ বছর বয়সি জাউয়ারিকে ১৫ ডিসেম্বর তিউনিশিয়ার বন্দরনগরী স্ফাক্স-এ তার নিজ বাসভবনের বাইরে ২০ রাউন্ড গুলি চালিয়ে হত্যা করা হয়।

হত্যাকাণ্ডের পর হামাস এক বিবৃতিতে জানায়, মোহাম্মাদ জাউয়ারি গত ১০ বছর ধরে তাদের হয়ে কাজ করছিলেন এবং তাকে ইসরাইলি গুপ্তচর সংস্থা মোসাদই হত্যা করেছে।

এ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে গত সপ্তাহে রাজধানী তিউনিসে শত শত মানুষ বিক্ষোভ দেখায়।

এর আগে ইসরাইল ২০১২ সালে স্বীকার করেছিল, তারা ১৯৮৮ সালে তিউনিসে পিএলও’র সদর দপ্তরে হামলা চালিয়ে সংস্থার তৎকালীন দ্বিতীয় শীর্ষ নেতা আবু জিহাদকে হত্যা করেছিল।

You Might Also Like