ইরানের সেনাবাহিনী-আইআরজিসি’র যৌথ বিমান মহড়া শুরু

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সেনাবাহিনী ও বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর আকাশ প্রতিরক্ষা বিভাগের পূর্ণাঙ্গ যৌথ বিমান মহড়া শুরু হয়েছে। ‘ডিফেন্ডার্স অব বেলায়াত স্কাইস- সেভেন’ নামের এ মহড়া আইআরজিসি’র খাতামুল আম্বিয়া বিমান ঘাঁটির কমান্ডার ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফারজাদ ইসমাইলির নির্দেশে আজ (সোমবার) সকালে শুরু হয়।

ইরানের দক্ষিণ, দক্ষিণ-পূর্ব ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের প্রায় পাঁচ লাখ বর্গ কিলোমিটার এলাকায় চলবে তিন দিনব্যাপী এ মহড়া। দেশের আকাশসীমার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর বিভিন্ন বিভাগের মধ্যে সমন্বয় জোরদার করার জন্য এ মহড়া চালানো হচ্ছে।
চলতি মহড়ায় সেনাবাহিনী এবং আইআরজিসি’র ১৭ হাজার সেনা অংশ নিচ্ছে এবং এতে এফ-৪ ফ্যান্টম জঙ্গিবিমানসহ দেশের সশস্ত্র বাহিনীর নানা ধরনের বিমান অংশ নেবে। অভ্যন্তরীণ ও বিদেশী বিমানকে মহড়া এলাকা এড়িয়ে চলার জন্য আগেই সতর্ক করা হয়েছে।
ইরানের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি ফাতেহ ও মাতলায়েল ফজর রাডারের পাশাপাশি নানা ধরনের রেকর্ড করার যন্ত্র মোতায়েন ও পর্যবেক্ষণের জন্য ভ্রাম্যমান ফাঁড়ি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। এছাড়া, সেনাবাহিনীর রা’দ বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাসহ গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ ও তা সিদ্ধান্ত গ্রহণ কেন্দ্রে পাঠানোর জন্য নানা উপকরণ মোতায়েন করা হয়েছে। ইলেক্ট্রনিক ওয়ারফেয়ারের পাশাপাশি কল্পিত শত্রুর হামলা মোকাবেলা কিংবা শত্রুর ঘাঁটিতে হামলার জন্য স্বল্প, মধ্যম ও দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থাও মোতায়েন করা হয়েছে।

You Might Also Like