আন্দোলনের মুখে খুলে দেওয়া হলো শাবি

ক্যাম্পাস খোলা রাখার দাবিতে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা সফল হয়েছেন।

তাদের আন্দোলনের মুখে বৃহস্পতিবার থেকেই শাবি ক্যাম্পাস খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে সিন্ডিকেটের জরুরি সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক কবির হোসেন বলেন, উদ্ভূত পরিস্থিতিতে জরুরি সিন্ডিকেট সভায় আজ বৃহস্পতিবার থেকেই শাবির সকল ক্লাস, পরীক্ষা চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া আগামী ২৫ ডিসেম্বর থেকে ছেলেদের তিনটি আবাসিক হল খুলে দেওয়া হবে। যাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সঠিক কাগজপত্র ও আইডি কার্ড আছে, তারাই হলে উঠতে পারবেন। কোনো বহিরাগত হলে উঠতে পারবেন না।

এদিকে সিন্ডিকেটের এমন সিদ্ধান্তে ক্যাম্পাসে তাৎক্ষণিকভাবে আনন্দ মিছিল করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

প্রসঙ্গত, ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়ার পর সৃষ্ট পরিস্থিতিতে বুধবার সকালে অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ইশফাকুল হোসেন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

পরে সিন্ডিকেট কমিটির সভায় ৬ জানুয়ারি পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত ছাড়াও মঙ্গলবার ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনা তদন্তে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এ ছাড়া শাবির তিন আবাসিক ছাত্র হলও বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের ঘোষণায় সাধারণ শিক্ষার্থীরা প্রথমে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক অবরোধ করেন। পরে তারা ভিসি কার্যালয় ঘেরাও করেন।

মঙ্গলবার রাতে শাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান খান গ্রুপের সঙ্গে সহ-সভাপতি আবু সাঈদ আকন্দ, অঞ্জন রায় ও যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাজিদুল ইসলাম সবুজ গ্রুপের সংঘর্ষ হয়। এতে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

You Might Also Like