ভূত তাড়ানোর যন্ত্র!

বিরক্তিকর মশা তাড়ানোর জন্য কয়েল, স্প্রেসহ বেশ কিছু উপায় আছে, তবে ভূত তাড়ানোর কোনো যন্ত্রের কথা নিশ্চয়ই আগে শোনেননি।

দেখতে অনেকটা লাউড স্পিকারের মতো হলেও নিচে কাঠের তৈরি বাক্সটি আসলে একটি ভূত তাড়ানোর যন্ত্র। ট্রিসাকশ্রি নামে এই যন্ত্র তৈরি করেছে থাইল্যান্ডে বুনডি ওয়ার্কশপ নামে একটি কোম্পানি। এর দাম ধরা হয়েছে দেড় হাজার ডলার। আর আমেরিকায় পাঠানোর চার্জ ধরা হবে আরো ১৪০ ডলার। একটু বেশি দামই তাই না?
তবে ঘরে যদি বিরক্তিকর ভূত রাত-বিরাতে আপনাকে উত্ত্যক্ত করে, ভয় দেখায়, তাহলে এই দামে ভূতের হাত থেকে নিষ্কৃতি পেতে চাইবেন অনেকেই। ২০০৯ সালে প্রথমে এই ট্রিসাকশ্রি নামে ডিভাইসের কথা মিডিয়ায় আসে, যা রেডিও ওয়েভের মাধ্যমে ঘরে থাকা কোনো ভূত বা প্রেতাত্মা দূর করতে পারে। যারা এ নিয়ে জেনেছেন, সবাই হেসেই উড়িয়ে দিয়েছেন, বলেছেন এটা একটা বোকা বানানোর গ্যাজেট, ভুয়া কিছু। বুনডি ওয়ার্কশপ একটি ডিভাইসও বিক্রি করতে পারবে না বলে মন্তব্য করেছেন কেউ কেউ।
তবে সাত বছর পর প্রচুর বিক্রি হওয়া এই ডিভাইসের এখন আরো উন্নত মডেল বাজারে এসেছে। ট্রিসাকশ্রি টু নামে নতুন এই মডেলটি ইনফ্রারেড ক্যামেরা, ইলেকট্রোম্যাগনেটিক ফিল্ড মিটার ব্যবহার করে সুপার ন্যাচারাল কোনো কিছুর অস্তিত্ব ধরতে পারে। এরপর রেডিও এনার্জির মাধ্যমে ওই ভূত তাড়াতে পারে।

You Might Also Like