৫ জানুয়ারীর নির্বাচন প্রশ্নে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান অপরিবর্তত রয়েছে : ড্যান মজিনা

৫ ই জানুয়ারি নির্বাচনের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্ত অপরিবর্তিত রয়েছে বলে জানালেন বাংলাদেশে মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিও মজিনা। রোববার নিউইয়র্কে সেন্টার ফর এনআরবি আয়োজিত ‘ট্যালেন্ট ইনভেস্টম্যান্ট এন্ড রেমিট্যান্স ফর ডেভেলপমেন্ট’ শীর্ষক এ কনফারেন্সে প্রধান অতিথির বক্তব্যেএকথা জানান তিনি। বাংলাদেশের বিচার বহির্ভূত হত্যাকান্ড, গুম যারাই করুক না কেন তার সুষ্ঠু তদন্তের আশাও করেন তিনি। ড্যান মজিনা বলেন, অর্থনৈতিক দিক দিয়ে এশিয়ার ট্রাইগার হিসেবে আবির্ভূত হবে বাংলাদেশ। সেন্টার ফর রেসিডেন্ট বাংলাদেশীজ -এর চেয়ারম্যান এম এস সেকিল চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কনফারেন্সে আরো বক্তব্য রাখেন চার্জ দ্যা অ্যাফেয়ার্স এম এ মুহিত, নিউ ইয়র্কে নিযুক্ত বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল শামীম আহসান, ট্রাস্ট ব্যাংকে এম. ডি ইশতিয়াক আহম্মেদ চৌধুরী, মহিলা ব্যবসায়ী নাসরিন আউয়াল। ওয়াশিংটনস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের চার্জ দ্যা অ্যাফেয়ার্স এম এ মুহিত বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশীরা শুধুমাত্র বাংলাদেশে রেমিটেন্স পাঠিয়ে সহযোগীতা করছেন না , বরং তারা যুক্তরাষ্ট্রের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক বৃদ্ধিতেও কার্যকর ভূমিকা রাখছে। আলোচনায় অংশ নিয়ে কনসাল জেনারেল শামীম আহসান দেশ থেকে মেধা পাচার বিষয়টিকে ট্যালেন্টদের বৈশ্বিক নড়াচড়া হিসেবে উপস্থাপন করেন। ট্রাস্ট ব্যাংকের এম ডি. ইশতিয়াক এম চৌধুরী বলেন, প্রবাসীদের দেশে টাকা পয়সা আদান প্রদানে যে দুর্ভোগ পোহাতে হয় তা লাগবে প্রবাসীদের সংগঠনগুলোকে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাথে নিবিড় যোগাযোগ বাড়াতে হবে। বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নাসরিন আওয়াল বলেন, নারী উদ্যোক্তারা এখনো বাংলাদেশে ব্যাংকের সহায়তা পেতে সংগ্রাম করে যাচ্ছেন।
কনফারেন্সে মতবিনিময়ে অংশ নেন নিউ ইয়র্ক বাংলাদেশ প্রেসক্লাবের প্রেসিডেন্ট আবু তাহের, এটর্নি মইন চৌধুরী, সাংবাদিক তাসের খান, ড. মনসুর খান, ব্যাবসায়ি আজিজ আহমেদ প্রমূখ। অনুষ্ঠানে বিচারপতি বদরুল ইসলাম চৌধুরীকে সম্মাননা দেয়া হয়।

You Might Also Like