প্রেসিডেন্টের সাধুবাদ সত্ত্বেও সংশয় প্রকাশ দুঃখজনক: রিজভী

প্রেসিডেন্টের সঙ্গে বিএনপির সংলাপের ব্যাপারে বাংলাদেশের ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের ‘সংশয়’ থাকাটা অত্যন্ত দুঃখজনক বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। আজ (সোমবার) দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, স্বয়ং প্রেসিডেন্ট যেখানে ইসি গঠনে বিএনপির প্রস্তাবকে গঠনমূলক উল্লেখ করে সাধুবাদ জানিয়েছেন সেখানে এ সংশয় প্রকাশ দুঃখজনক।

রোববার আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের রাষ্ট্রপ্রতির আহবানে সাড়া দিয়ে সংলাপে অংশ নিতে যাওয়ার জন্য বিএনপিকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি বিএনপির সদিচ্ছা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছিলেন। বিএনপিকে উদার মনভাব নিয়ে সংলাপে অংশগ্রহণের আহ্বান জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেছিলেন, সংলাপে আসতে হলে বিএনপিকে উদার মনোভাব নিয়ে আসতে হবে। বিএনপি যদি মনে করে বিচার মানি, তাল গাছ আমাদের, তাহলে সংলাপ সফল হবে না।

তার এ বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় রুহুল কবির রিজভী বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে দেয়া প্রস্তাবে কোথাও কারো নাম উল্লেখ করা হয়নি। সার্চ কমিটি কিংবা নির্বাচন কমিশনের প্রধান হিসেবে দল সমির্থত কাউকে করার ইচ্ছা প্রতিফলিত হয়নি; বরং বিএনপির প্রস্তাবে বলা হয়েছে, নির্বাচন কমিশন হতে হবে সবার কাছে গ্রহণযোগ্য, নিরপেক্ষ। প্রয়োজনে অন্যান্য রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনা করে আরো যাতে নিরপেক্ষ করা যায় সে ব্যাপারে কার্যকর উদ্যোগ নেয়া যেতে পারে। এতে কোথায় নীতি নৈতিকতার ব্যত্যয় ঘটলো তা বোধগম্য নয় বলে রিজভী উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, সংবিধানে নির্দেশনা আছে শক্তিশালী নির্বাচন কমিশন গঠনের ক্ষেত্রে আইন তৈরি করতে হবে। আওয়ামী লীগ ও সরকারের যদি সৎ ইচ্ছা থাকে যে আমরা একদলীয় শাসন কায়েম করব না, জনগণের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটানোর অন্তর্গত তাগিদ থাকে, তাহলে অবশ্যই একটি শক্তিশালী সার্চ কমিটি এবং নির্বাচন কমিশন গঠন করবে। এখানে সংশয়ের কথা বললে দিনকে দিন আওয়ামী লীগ মানুষের কাছে কলঙ্কিত হবে বলে দাবি করেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব।

You Might Also Like