ওয়াশিংটন বাংলাস্কুলের বিজয় মেলা ও পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত

শিব্বীর আহমেদ, ওয়াশিংটন: আনন্দ উদ্দীপনা আর স্কুলের ছাত্রছাত্রী ও তাদের পরিবারের সদস্যদের সম্মিলিত অংশগ্রহণ ও পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হল বাংলাদেশ সেন্টার ফর কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট ইন্ক (বিসিসিডিআই) বাংলাস্কুলের বিজয় মেলা ও পিঠা উৎসব। ১৭ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় ভার্জিনিয়ার আনানডেলস্থ নোভা ক্যাম্পাস অডিটরিয়ামে বাংলাস্কুলের ছাত্রছাত্রীদের অংশগ্রহণে ”এসো আঁকি বিজয়ের রঙে” শীর্ষক বিশেষ চিত্রাংকন প্রতিযোগীতার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়।

এরপর অনুষ্ঠানের মুল মঞ্চে বিসিসিডিআই সভাপতি সঞ্জয় বড়ুয়ার শুভেচ্ছা বক্তব্যের মধ্য দিয়ে শুরু হয় বিজয়ের মুল অনুষ্ঠান ও পিঠা উৎসব। শতরূপা বড়ুয়ার গ্রন্থনা ও সারা তাম্মীর প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানের মুল মঞ্চে শুরু হয় দেশাত্ববোধক গানের দলীয় পরিবেশনা। একবার যেতে দেনা আমার ছোট্ট সোনার গাঁয়, এই পদ্মা এই মেঘনা, সবুজ সুনীল মাখা, আমার ভাইয়ের রক্তে রাঁঙ্গানো, কবিতা ”কাঁদতে আসিনি ফাঁসির দাবী নিয়ে এসেছি, জয় বাংলা বাংলার জয়, ও গঙ্গা নদীরে তোর বুকে, আমার সোনার বাংলা আমি তোমায় ভালবাসি, পুর্ব দিগন্তে সুর্য্য উঠেছে, কবিতা স্বাধীনতা তুমি, এক সাগরের রক্তের বিনিময়ে, ওগো বীর মুক্তিযোদ্ধা, বিজয় দেখেছিলাম, যে মটির বুকে ঘুমিয়ে আছে ইত্যাদি দেশাতœবোধক গান আর কবিতায় অংশগ্রহন করে নাসির চৌধুরী, জিনাত চৌধুরী, রুমানা সুমি চৌধুরী, সরকার কবির উদ্দীন, শামীম চৌধুরী, মুক্তা বড়–য়া, নাবিহা বৃষ্টি হাসান, উৎপল বড়–য়া, আতীয়া মাহজাবীন দিপক বড়–য়া প্রমুখ।

এরপর বাংলাস্কুল নৃত্য ও গীত শাখার শিল্পীদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় ‘সালাম সালাম হাজার সালাম’। এই পর্বে শিল্পীরা নাচ ও গানে গানে পরিবেশন করে আমরা সবাই বাঙালি, প্রতিদিন তোমায় দেখি সুর্যের আগে, রাঙামাটির রঙে চোখ জুড়ালো, সোনা সোনা লোকে বলে সোনা, সং অব বাংলাদেশ, আমার দেশের মত এমন দেশ, সেই রেইল লাইনের, সব কটা জানালা খুলে দাও না, আমার বাংলাদেশের একতারার সুর, সালাম সালাম হাজার সালাম, এবং মোরা একটি ফুলকে বাঁচাবো বলে যুদ্ধ করি। এই পর্বে অংশগ্রহণ করে অবন্তী, আংকি, অপসরা, আনন্দী, রানীতা, আনিতা, অহনা, তাসনুভা, সুস্ময়, ফারজান, রিদিতা, শ্রেয়সী, বীজন, কৌশিক, প্রিয়াংকা বোস ও তার দল।

অনুষ্ঠানে স্মৃতিসৌধ রেপ্লিকায় ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় উপস্থিত প্রবাসী বাংলাদেশী এবং বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এছাড়া অনুষ্ঠানে র‌্যাফেল ড্র, পিঠা প্রতিযোগীতা বিজয়ী এবং চিত্রাংকন প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরন করা হয়।

You Might Also Like