পুতিনকে সতর্ক করেছিলেন ওবামা

যুক্তরাষ্ট্রের বিদায়ী প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা জানিয়েছেন, নির্বাচনের সময় ডেমোক্রেটিক পার্টির ওয়েবসাইট হ্যাক নিয়ে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে সতর্ক করেছিলেন তিনি।

সেপ্টেম্বর মাসে নির্বাচনকে সামনে রেখে পুতিনকে তিনি হ্যাকিং বন্ধ করতে বলেছিলেন এবং এর ফল খুব খারাপ হবে বলে তাকে হুঁশিয়ার করেছিলেন। এর এক মাস পরে যুক্তরাষ্ট্র অভিযোগ করে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচন প্রক্রিয়া হ্যাক করেছে রাশিয়া।

প্রেসিডেন্ট পুতিন সব জানেন- এমন ইঙ্গিত দিয়ে ওবামা বলেন, ‘পুতিন ছাড়া রাশিয়ায় তেমন কিছুই ঘটে না।’

শুক্রবার এ বছরের শেষ সংবাদ সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার সাইবার হামলা নিয়ে খোলামেলা কথা বলেন ওবামা। একই সঙ্গে রাশিয়ার হ্যাকিং নিয়ে তদন্তে সমর্থন দিতে নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

ডেমোক্রেটিক পার্টির ওয়েবসাইট ও হিলারি ক্লিনটনের ক্যাম্পেইন ম্যানেজার জন পোডেস্টার ই-মেইল হ্যাকের জবাব দেওয়ার হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন ওবামা। রাশিয়াকে সাইবার শক্তি ব্যবহার করে জবাব দেওয়ার কথা বলেন তিনি। ওবামা বলেন, ‘আমাদের প্রতি তারা যা করেছে, আমরাও তাদের প্রতি তাই করতে পারি।’

উত্তরসূরি ট্রাম্পের নাম ধরে আক্রমণ না করলেও ওবামা মনে করেন, যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের ভয়াবহতা সম্পর্কে কিছু রিপাবলিকান নেতা বুঝে উঠতে পারেননি।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দারা দাবি করেন, নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সাইবার হামলা চালিয়ে ট্রাম্পকে জেতাতে সাহায্য করছে রাশিয়া। এ দাবিকে হাস্যকর ও ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দেন ট্রাম্প।

১৬ ডিসেম্বর সিআইএর পরিচালক জন ব্রেনান বলেন, রাশিয়ার সাইবার হামলা ট্রাম্পকে জেতাতে সাহায্য করেছে বলে সিআইএ যে সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে, তার সঙ্গে একমত হয়েছে এফবিআই।

যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে রাশিয়া বলেছে, এটি অভদ্রতা। রাশিয়া কখনো হ্যাকিংয়ের বিষয়টি স্বীকার করেনি। পুতিনের মুখপাত্র বলেছেন, ‘এ সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্রের কথা বলা বন্ধ করা উচিত অথবা চূড়ান্তভাবে এ বিষয়ে কিছু প্রমাণ হাজির করা উচিত।’

You Might Also Like