বিমানের চেয়ে দ্রুতগতির ট্রেন!

এই মুহূর্তে ভারতীয়দের পরিকল্পনায় রয়েছে এমন একটি ট্রেন, যা বিমানের চেয়ে দ্রুতগতিতে চলবে। ভাড়া হবে বিমানের অর্ধেক।

বিশেষ এই ট্রেনের পরিকল্পনায় বলা হয়েছে, চেন্নাইয়ে মর্নিং ওয়াক সেরে বেঙ্গালুরুতে নাশতা করে সকাল ৯টার আগে অফিসে পৌঁছানো সম্ভব হবে।

স্থলে সুপারসনিক গতিতে চলাচল করতে বিশেষ এ ট্রেন তৈরির পরিকল্পনা এখন ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের অনুমতির অপেক্ষায় রয়েছে। সরকার অনুমোদন দিলে ভারতেই প্রথম ধরনের ট্রেন দেখা যাবে।

ভারত বর্তমানে বুলেট ট্রেন প্রকল্প নিয়েছে। এতে ব্যয় হবে ১২ বিলিয়ন ডলার, যা ২০২৩ সাল নাগাদ ভারতে চলাচল করবে। কিন্তু সুপারসনিক ট্রেন প্রকল্পে খরচ হবে মাত্র ১ বিলিয়ন ডলার। প্রকল্প ব্যয় কম, যাত্রীভাড়াও কম।

বিশেষ এ ট্রেন হবে ক্যাপসুল আকৃতির বগি দিয়ে। প্রায় বায়ুশূন্য টিউব লাইন দিয়ে চলাচল করবে। মাত্র এক ঘণ্টায় ১ হাজার ২১৬ কিলোমিটার পথ পাড়ি দেওয়া সম্ভব হবে। অর্থাৎ বেঙ্গালুরু থেকে ৩৪৫ কিলোমিটার অতিক্রম করে চেন্নাইয়ে যাওয়া যাবে মাত্র কয়েক মিনিটে।

হাইপারলুপ ট্রান্সপোর্টিং সিস্টেম ব্যবহার করে বিশেষ এ ট্রেন চলাচল করবে। এ সিস্টেম সম্পূর্ণভাবে নবায়নযোগ্য জ্বালানির ওপর নির্ভরশীল। টিউবের ওপরে সৌরশক্তির প্যানেল থেকে এবং বায়ুশক্তি থেকে জ্বালানি চাহিদা মিটবে।

নতুন এ ট্রেন তৈরির বিষয়ে ভারত সরকার ভাবছে। যদি নির্মাণ করা সম্ভব হয়, তবে একুশ শতকের ভারত পাবে এক মাত্রা, উন্নয়নের নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে।

You Might Also Like