বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ ২১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ ২১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার ছাড়িয়েছে। রিজার্ভের দিক থেকে এটি দেশের সর্বোচ্চ রেকর্ড। এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রিজার্ভ অর্জনের তালিকায় স্থান করে নিলো।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু হেনা মো. রাজি হাসান বলেন, সোমবার দিনশেষে রিজার্ভের পরিমাণ ২১ দশমিক ০৩ বিলিয়ন ডলারে দাঁড়ায়। মূলত রেমিটেন্স প্রবাহ এবং রপ্তানি আয় বৃদ্ধি রিজার্ভে রেকর্ড গড়ার ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছে। চলতি মাসে এ পর্যন্ত রেমিটেন্স এসেছে ৬০ কোটি ডলার। ঈদুল ফিতরের আগে প্রবাসীরা আরো বেশি অর্থ দেশে পাঠাবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

রিজার্ভ বেশি হওয়ার কারণ উল্লেখ করে রাজি হাসান বলেন, রপ্তানি বেশি হয়েছে। ডলারের তুলনায় টাকার মূল্য স্থিতি থাকায় আন্তর্জাতিক বাজারে খাদ্যের দাম কম। খাদ্য আমদানি কম। জ্বালানি মূল্য স্থিতিশীল রয়েছে। নিয়মিত রেমিটেন্স এসেছে। এতে করে অর্থনীতি সুদৃঢ় অবস্থানে আছে বলে প্রমাণিত হল।

তিনি বলেন, এলসি ওপেনিং বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি সহজ হবে। এ রিজার্ভ দুর্দিনের জন্য রাখা হয়। এটা আমাদের এক ধরনের শক্তি। যেকোনো সময় রপ্তানি করতে পারবো।

উল্লেখ্য, গত ১০ এপ্রিল বাংলাদেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো রিজার্ভ ২০ বিলিয়ন ডলারের মাইলফলক অতিক্রম করেছিল। দক্ষিণ এশিয়ায় ৩১৩ দশমিক ৬৭ বিলিয়ন মার্কিন ডলার নিয়ে ভারত প্রথম ও বাংলাদেশ দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে। এরপরই পাকিস্তানের ১৩ বিলিয়ন ডলার।

You Might Also Like