সংখ্যালঘু নির্যাতন,তদন্তের দাবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হিন্দুদের মন্দির ও বাড়িতে হামলাসহ সারা দেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনের ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তের দাবি জানিয়েছে ইসলামী ছাত্রসেনা।

শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে‌ ‌এক মানববন্ধনে এ দাবি জানায় সংগঠনটি।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম। আমাদের প্রিয় নবী শুধু মুসলিমদের ক্ষেত্রে নয়, বরং সব ধর্মের ক্ষেত্রে সহিঞ্চুতা প্রদর্শন করেছিলন। তিনি বিদায় হজের ভাষণে আরবের সংখ্যালঘুদের ধর্মীয় স্বাধীনতা প্রদান এবং মুসলিমদের জন্য তাদের রক্ত হারাম করে দিয়েছিলেন। প্রিয় নবীর কথা অনুযায়ী, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট যারা করে তারা ইসলামের শত্রু।

বক্তারা আরো বলেন, জামাত- হেফাজত যাদের বন্ধু হয়, তাদের শত্রুর প্রয়োজন হয় না। তারা মাজার ভাঙার সংস্কৃতি চালু করে মন্দির ভাঙার কাজে নতুন করে লিপ্ত হয়েছে।যারা ইসলামের লেবাস পড়ে অমুসলিম সম্প্রদায়ের ঘর-বাড়ি পুড়িয়ে দেয়, তারা ইসলাম ও মানবতার শত্রু। তাই ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হামলাসহ সারা দেশে সংখ্যালঘু নির্যাতনে প্রকৃত দোষীদের গ্রেপ্তার করতে বিচার বিভাগীয় তদন্ত করুন, যাতে ভবিষ্যতে এরকম ঘটনা আর না ঘটে।

ছাত্রসেনার সভাপতি মুহাম্মদ নুরুল হক চিশতীর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন ইসলামী ফ্রন্টের যুগ্ম মহাসচিব ও যুবসেনার সভাপতি অধ্যাপক এম এ মোমেন, ফ্রন্টের সাংগঠনিক সচিব আল্লামা আ ন ম মাসউদ হুসাইন আল কাদেরী, সৈয়দ মুজাফফর আহমাদ, মুহাম্মদ আবদুল মতিন, মুহাম্মদ মাহমুদুল হাসান আনছারী, মুহাম্মদ আবদুল হাকিম, সোলায়মান খান রব্বানী, ছাত্রসেনার সাধারণ সম্পাদক ছাদেকুর রহমান খান, শাহাদাত হুসাইন, মুহাম্মদ মাসুদ হোসাইন, এইচ এম শহীদুল্লাহ, নুরুল্লাহ রায়হান খান, কাওসার আহমাদ, ফয়সাল করীম, আবুল কালাম আজাদ, আমান উল্লাহ আমান, নিজামুল করীম সুজন, আলী আকবর, মোহাম্মদ শাহ্জালাল, শেখ মুহাম্মদ বোরহান উদ্দীন, ছাত্রনেতা ইমরান হুসাইন তুষার প্রমুখ।

You Might Also Like