সিরিয়ায় তুর্কি বিমান হামলা: ২০০ কুর্দি নিহত

সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে তুরস্কের বিমান হামলায় ১৬০ থেকে ২০০ কুর্দি গেরিলা নিহত হয়েছে। তুরস্কের সামরিক বাহিনী আজ (বৃহম্পতিবার) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, অন্তত ২৬ বার তুর্কি বোমারু বিমানগুলো কুর্দি গেরিলাদের অবস্থান হামলা চালায়।

তুর্কি বাহিনীর বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সিরিয়ার আল-হাসিয়া, উম্মুল কুরা এবং উম হুশ গ্রামে তুর্কি বাহিনী হামলা চালিয়ে নয়টি ভবন ধ্বংস করে। এছাড়া, বিমান হামলায় গেরিলাদের একটি সাঁজোয়াযান ও চারটি অন্য গাড়ি ধ্বংস হয়। বিমান হামলার আগে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোগান বলেছেন, তার দেশে যাওয়া পর্যন্ত শত্রুদের ওপর হামলার বিষয়ে আংকারা অপেক্ষা করবে না।

সিরিয়ায় তৎপর কুর্দি গেরিলাদেরকে আমেরিকা সমর্থন দেয় বলে ওয়াশিংটন দাবি করে আসছে। তারা দাবি করে, উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠী দায়েশকে দমনের জন্য কুর্দি গেরিলারা কার্যকরী হাতিয়ার। অন্যদিকে আংকারা বলছে, সিরিয়ার কুর্দি গেরিলারা হচ্ছে তুরস্কের নিষিদ্ধ ঘোষিত পিকেকে গেরিলাদেরই শাখা। তুরস্ক এসব কুর্দি গেরিলাকে সন্ত্রাসী বলে মনে করে। গত আগস্ট মাসে দামেস্কের অনুমতি ছাড়াই সিরিয়ায় সেনা পাঠিয়েছে তুরস্ক। দেশটি বলছে, সিরিয়া সীমান্ত থেকে দায়েশ ও কুর্দি গেরিলাদেরকে বিতাড়িত করার জন্য এসব সেনা পাঠানো হয়েছে।

You Might Also Like