সহিংস আদর্শ রুখতে হোয়াইট হাউসের নতুন নীতি

যুক্তরাষ্ট্রে সহিংস আদর্শ রুখতে হোয়াইট হাউস নতুন উদ্যোগ নিয়েছে।

এ উদ্যোগের আওতায় গৃহীত নীতিতে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে কমিউনিটিভিত্তিক প্রতিরোধ ব্যবস্থাকে। প্রতিটি কমিউনিটিতে সহিংস আদর্শের বিরুদ্ধে ক্যাম্পেইন চালানো হবে।

নীতিতে বলা হয়েছে, সহিংস আদর্শের বিরুদ্ধে জনমত গড়ে তুলতে শিক্ষক ও মানসিক স্বাস্থ্যবিষয়ক চিকিৎসকদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। নীতি প্রণয়নের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক খবরে বুধবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সহিংসতা ছড়িয়ে পড়া রুখতে প্রেসিডেন্ট ওবামার দ্বিতীয় মেয়াদের পাঁচ বছরে এই প্রথম নতুন নীতি পরিবর্তন করা হচ্ছে। যেসব সহিংস গোষ্ঠী সহিংসতা ছড়াতে ঘাতকদের উদ্বুদ্ধ করছে এবং হামলা চালাতে সাহায্য করছে, তাদের বিরুদ্ধে কমিউনিটি ভিত্তিক প্রচার চালানো হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের যেসব স্থানে সম্প্রতি ঘৃণামূলক সহিংস হামলা হয়েছে, তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য সাউথ ক্যারোলাইনা, চার্লেসটন, সান বার্নারদিনো, ক্যালিফোর্নিয়া, অরল্যান্ড, ফ্লোরিডা, নিউ ইয়র্ক ও নিউ জার্সি।

চার্লেসটনে ঐতিহ্যবাহী আফ্রিকান-আমেরিকান গির্জায় এক কট্টরপন্থি শ্বেতাঙ্গের বর্বর হামলায় নিহত হয় নয়জন। এ ছাড়া অন্য হামলাগুলো চালিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস) অনুসারীরা। এ গোষ্ঠী যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সন্ত্রাসী হামলা চালানোর দায় স্বীকার করেছে।

আইএসের বিরুদ্ধে প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়ে কৌশল প্রণয়নে যুক্তরাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে মার্কিন কংগ্রেসের ডেমোক্র্যাট ও রিপাবলিকান নেতারা। সন্ত্রাসী এ গোষ্ঠীর লোকবল সংগ্রহের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ারও আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

হোয়াইট হাউসের প্রণীতি এই নীতিমালা বাতিলে কংগ্রেসের কোনো এখতিয়ার নেই। তবে এর বাস্তবায়ন ঠিকঠাক না হলে অর্থের জোগান বন্ধ করে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে কংগ্রেস।

You Might Also Like