নাশকতার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল গাজীপুরের দুই জঙ্গি : র‌্যাব

গাজীপুরের হাড়িনাল পশ্চিমপাড়ায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে নিহত সন্দেহভাজন দুই জঙ্গি ‘দুর্গাপূজায় নাশকতা চালানোর জন্য’ এক মাস ধরে প্রস্তুতি নিচ্ছিল বলে জানিয়েছে র‌্যাব।

নিহতদের মধ্েয তৌহিদুল ইসলাম (২২) নামে একজন গাজীপুরের ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ডুয়েটে) ছাত্র; আর রাশেদুল ইসলাম (২০) নামে অন্যজন এবার এইচএসসি পাস করেছে বলে র‌্যাবের মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান জানান।
তবে ডুয়েটের উপাচার্য মো. আলাউদ্দিন বলছেন, তৌহিদুল ইসলাম নামে তাদের কোনো ছাত্র শনিবার মারা যাননি।
নিহতদের বাড়ি নরসিংদী জেলায় বলে জানালেও তাদের বিস্তারিত ঠিকানা জানাতে পারেননি এই র‌্যাব কর্মকর্তা।
তিনি বলেন, রাশেদুল ও তৌহিদুল এক মাস আগে ছাত্র পরিচয় দিয়ে হাড়িনাল পশ্চিমপাড়ার লেবুবাগান এলাকায় আতাউর রহমানের বাড়ির একতলা ভাড়া নেয়।
“দুর্গাপূজায় বড় ধরনের নাশকতার প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য তারা সেখানে এক মাস ধরে অবস্থান করছিল।”
শনিবার ভোরে ওই বাড়িতে র‌্যাবের অভিযানে নিহত হয় রাশেদুল ও তৌহিদুল। ওই বাড়ি থেকে একটি একে-২২ রাইফেল, একটি পিস্তল, রাইফেলের ৭০ রাউন্ড গুলি, কিছু বিস্ফোরক ও একটি ল্যাপটপ উদ্ধারের কথা জানানো হয়েছে র‌্যাবের পক্ষ থেকে।
শনিবার হাড়িনালে এই অভিযান চলার মধ্েযই গাজীপুরের পাতারটেক এলাকায় পুলিশ ও সোয়াটের অভিযানে নিহত হয় সন্দেহভাজন আরও সাত জঙ্গি।
এছাড়া টাঙ্গাইল সদরের কাগমারা গ্রামের এক বাড়িতে সন্দেহভাজন জঙ্গিদের আরেক আস্তানায় র‌্যাবের অভিযানে নিহত হয় আরও দুজন।
আর রাতে ঢাকার আশুলিয়ার এক বাড়িতে অভিযানের সময় পাঁচতলা থেকে পড়ে মৃত্যু হয় এক ব্যক্তির, যাকে ‘নব্য জেএমবির প্রধান অর্থদাতা’ আব্দুর রহমান আয়নাল (৩০) হিসেবে চিহ্নিত করেছে র‌্যাব। ওই বাসা থেকে ৩০ লাখ টাকাও উদ্ধারের কথা জানিয়েছেন র‌্যাব কর্মকর্তারা।

You Might Also Like