সন্তানকে ৩০ বছর বাড়িতে আটকে রাখলেন মা-বাবা !

জার্মানিতে নিজের সন্তানকে বাড়িতে ৩০ বছর আটক রাখার অভিযোগ উঠেছে এক দম্পতির বিরুদ্ধে। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাত দিয়ে গার্ডিয়ান অনলাইন এ তথ্য জানিয়েছে।

৪৩ বছরের ওই ব্যক্তিকে বাভারিয়া রাজ্যের ফ্রেইয়েনফেলস থেকে চলতি সপ্তাহে উদ্ধার করা হয়েছে।

পুলিশের মুখপাত্র জারগান ট্যাডটার জানিয়েছেন, ওই ব্যক্তিটিকে একটি জরাজীর্ণ বাড়িতে রাখা হয়েছিল। প্রতিবেশীরা ওই বাড়িটি থেকে গোঙানির আওয়াজ পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে। এসময় দেখা গেছে, ওই ব্যক্তির হাত-পায়ের নখগুলো দীর্ঘদিন অকর্তিত ছিল এবং তার দেহে মল লেপ্টে রয়েছে। উদ্ধারের পর তাকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, তাদের বিশ্বাস এই ব্যক্তি মানসিকভাবে অসুস্থ।

ট্যাডটার বলেন, ‘ আমরা এখনো জানি না ঠিক কতো বছর মানুষটি জনবিচ্ছিন্ন ছিল এবং তাকে বাড়ির বাইরে যেতে দেওয়া হয়েছিল কি না। তবে এটা বলতে পারি তাকে সবার থেকে বিচ্ছিন্ন রাখা হয়েছিল।’

পুলিশ জানিয়েছে, ওই ব্যক্তি প্রাথমিক বিদ্যালয় শেষ করেছিল এবং মাধ্যমিক স্কুলে যাওয়া শুরু করেছিল। কিন্তু ১৩ বছর বয়সে বিশেষজ্ঞরা তাকে স্কুলে পড়াশোনার জন্য অযোগ্য ঘোষণা করে।

স্থানীয় একটি দৈনিককে ওই ব্যক্তির মা বলেছেন, ‘স্কুলে তাকে ব্যাপক উত্যাক্ত করা হতো। সে আমাদের সঙ্গে থাকতে চাইতো। সে কিসের মধ্য দিয়ে গিয়েছে তা যদি আপনাদের বলি তাহলে আমাকে বিশ্বাস করবেন না। আমি কেবল তাকে রক্ষা করতে চেয়েছি।’

এদিকে পুলিশ ওই দম্পতির বিরুদ্ধে অবহেলা ও সন্তানকে মিথ্যা কারাবাসের অভিযোগ এনেছে।

You Might Also Like