দুর্যোগ মোকাবিলায় ১,১২০ কোটি টাকা ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবিলা প্রকল্প বাস্তবায়নে ১ হাজার ১২০ কোটি টাকার সহজ শর্তে ঋণ দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক। সোমবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) সম্মেলন কক্ষে এ চুক্তি স্বাক্ষর করেন সরকারের অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব আরাস্তু খান ও বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর ইউহানেন্স জাট।

অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের (ইআরডি) অতিরিক্ত সচিব আরাস্তু খান বলেন, ‘আমরা দুর্যোগের ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ কমানোর চেষ্টা করছি। সিডর নতুন করে নিরাপত্তার বিষয়টি ভাবতে শেখায়। এ প্রেক্ষাপটে প্রকল্পটি গ্রহণ করা হয়েছিল। অতিরিক্ত অর্থায়নের মধ্যদিয়ে দুর্যোগ মোকাবিলায় উপকূলের মানুষের সক্ষমতা বাড়বে। বিশ্বব্যাংকের ভাইস প্রেসিডেন্ট এর আগে এ প্রকল্পম দেখেছিলেন। তিনি সাইক্লোন সেন্টার দেখে খুশি হন।’

বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর ইউহানেন্স জাট বলেছেন, ‘বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তনের শিকার। আমরা অতিরিক্ত অর্থায়ন দিয়ে প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ এগিয়ে নিতে চাই। এর মাধ্যমে দুর্যোগ মোকাবিলায় উপকূলবাসীদের সক্ষমতা বাড়বে। জলবায়ু পরিবর্তন সংক্রান্ত দুর্যোগ থেকে রক্ষার বিষয়েও উপকূলবাসীদের প্রস্তুত করা হচ্ছে।’

ইমার্জেন্সি ২০০৭ সাইক্লোন রিকভারি অ্যান্ড রিসটোরেশন প্রজেক্ট অ্যাডিশনাল ফিন্যান্সিং প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য আন্তর্জাতিক এ উন্নয়ন সংস্থা বাংলাদেশকে নমনীয়হারে ১৪০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার (১ হাজার ১২০ কোটি টাকা) প্রদান করবে।

বিশ্বব্যাংকের এ ঋণ ১০ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ৪০ বছরে পরিশোধযোগ্য। মোট ঋণের উত্তোলিত অর্থের উপর শূন্য দশমিক ৭৫ শতাংশ হারে সার্ভিস চার্জ প্রদান করতে হবে।

You Might Also Like