নকল এনার্জি ড্রিঙ্ক কারখানার সন্ধান : আটক ৩

পাবনা শহরের শালগাড়িয়ায় নকল ও ভেজাল এনার্জি ড্রিঙ্ক কারখানার সন্ধান পেয়েছে র‌্যাব। এ সময় আটক করা হয় তিনজনকে।

মঙ্গলবার দুপুরে এ অভিযান চালানো হয়। আটককৃতদের মধ্যে দুজনকে জেল-জরিমানা এবং একজনকে জেলহাজতে পাঠানো হয়।

র‌্যাব জানায়, শহরের শালগাড়িয়া পুরাতন এতিমখানা এলাকার ফারুক হোসেনের বাসা ভাড়া নিয়ে মনিরুল ইসলাম ও আব্দুল কাদের নকল যৌন উত্তেজক এনার্জি ড্রিঙ্ক তৈরি এবং বাজারজাত করে আসছিলেন।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খবর পেয়ে র‌্যাব-১২ পাবনা ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার বীনা রানী দাশ ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হামিদুর রহমানের নেতৃত্বে মঙ্গলবার দুপুরে সেখানে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় কারখানা থেকে ১৩ রকমের বিপুল পরিমাণ যৌন উত্তেজক নকল এনার্জি ড্রিঙ্ক ও সরঞ্জাম জব্দ করা হয়।

এছাড়া বাড়ির মালিক ফারুক হোসেনের ঘর থেকে মানুষের মাথার খুলি ও তলোয়ার উদ্ধার করা হয়। আটক করা হয় তিনজনকে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে দুই অসাধু ব্যবসায়ীকে ছয় মাস করে কারাদ- ও ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। এছাড়া বাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলা দায়ের করে জেলহাজতে পাঠানো হয়। পরে জব্দকৃত মালামাল ধ্বংস করা হয়।

সাজাপ্রাপ্তরা হলেন- পাবনা পৌর সদরের উত্তর শালগাড়িয়া মহল্লার মৃত জুড়ান প্রামানিকের ছেলে মনিরুল ইসলাম (৩৫), একই এলাকার আফাজ উদ্দিন খানের ছেলে আব্দুল কাদের (৩৪) এবং বাড়ির মালিক শালগাড়িয়া পুরাতন এতিমখানা এলাকার মৃত এনায়েত হোসেনের ছেলে ফারুক হোসেন (৩৮)।

You Might Also Like