সামরিক সহযোগিতা চুক্তি সই করল ভারত ও আমেরিকা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ভারত একটি গুরুত্বপূর্ণ সামরিক সহযোগিতা চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। এ চুক্তির ফলে দেশ দু’টি মেরামত ও পুনঃসরবরাহের কাজে একে অপরের স্থল, বিমান ও নৌঘাঁটিগুলো ব্যবহার করতে পারবে।

চীনের হুমকি মোকাবিলা বিশেষ করে সমুদ্রসীমায় বেইজিংয়ের ক্রমবর্ধমান সামরিক উপস্থিত প্রতিহত করার ক্ষেত্রে এই চুক্তি আমেরিকা ও ভারতকে যৌথভাবে কাজ করার সুযোগ এনে দেবে। মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যাশ্টন কার্টার ও তার ভারতীয় সমকক্ষ মনোহর পাররিকর সোমবার ওয়াশিংটনে এ চুক্তিতে সই করেন।

ওয়াশিংটন ও নয়াদিল্লির মধ্যে স্বাক্ষরিত এ সামরিক চুক্তির নাম দেয়া হয়েছে লজিস্টিক এক্সচেঞ্জ মেমোরেন্ডাম অব অ্যাগ্রিমেন্ট বা এলইএমওএ।

চুক্তি স্বাক্ষরের পর এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে কার্টার বলেন, এ চুক্তি স্বাক্ষরের ফলে দু’দেশের মধ্যে যৌথ সামরিক অভিযান আরো বেশি সহজ ও কার্যকর হবে। অন্যদিকে পাররিকর বলেন, এ চুক্তির ফলে দু’দেশের নৌবাহিনীর পক্ষে যৌথ সামরিক মহড়া এবং মানবিক ত্রাণ তৎপরতা চালানো সহজতর হবে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্রদের মধ্যে এ ধরনের সামরিক চুক্তি স্বাভাবিক বিষয় হলেও ওয়াশিংটনের সঙ্গে এ রকম চুক্তি করতে এর আগে নয়াদিল্লির আপত্তি ছিল। নয়াদিল্লি মনে করতো এ ধরনের চুক্তি করা হলে তার ভিত্তিতে ভারতে সামরিক ঘাঁটি স্থাপন করতে পারে আমেরিকা।

এমনকি এর মাধ্যমে আমেরিকার সঙ্গে এমন কোনো সামরিক জোটে জড়িয়ে যেতে হতে পারে যাতে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক ইস্যুতে ভারতের ঐতিহ্যবাহী স্বাধীনচেতা নীতি ক্ষুণ্ন হয়। কিন্তু দু’দেশের যৌথ শত্রু চীনের আগ্রাসী ভূমিকা ওয়াশিংটন ও নয়াদিল্লিকে সামরিক দিক দিয়ে অনেকটা কাছাকাছি এনে দিয়েছে বলে পর্যবেক্ষকরা মনে করছেন।#

পার্সটুডে

You Might Also Like