৪০ ভাগ ভোট পড়লেতো নির্বাচন অবৈধ হয় না : প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দশম জাতীয় নির্বাচন বন্ধের আন্দোলনে তারা প্রায় শতাধিক মানুষ হত্যা করেছে। যারা আন্দোলনের নামে মানুষ হত্যা করেছে তারা কী আনতে চেয়েছিল? তারা কি মিলিটারি রুল আনতে চেয়েছিল? যে নির্বাচনে ৪০ ভাগ ভোট পড়েছিল সে নির্বাচন কীভাবে অবৈধ হয়? অনেক ডেভেলপড কান্ট্রিতে তো ৪০/৫০ ভাগের ওপরে ভোটই পড়েনা। ৪০ ভাগ ভোট পড়লেতো নির্বাচন অবৈধ হয় না। এভাবেতো বৈধ-অবৈধ প্রশ্ন তোলা যায় না। অবৈধের প্রশ্ন না তুলে নির্বাচনে আসলেইতো পারতেন।

আজ শনিবার বিকেল ৪টায় প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘যে অবৈধভাবে ক্ষমতা দখল করে তার হাতে যে দলের জন্ম তাদের মুখ থেকে অবৈধতার প্রশ্ন আসে কীভাবে? তাদের জন্ম নিয়েই তো প্রশ্ন থেকে যায়। অবৈধতো তারা। তারা নির্বাচনে আসেনি। এ দায় কার? তারা গত নির্বাচন ঠেকানোর জন্য যে আন্দোলন গড়ে তুলেছে তা ছিল মানুষ হত্যার আন্দোলন।’

তিনি বলেন, যারা বৈধতার প্রশ্ন এনেছে তাদের জন্ম অবৈধ। অবৈধ জন্মের অধিকারীরা সব জায়গায় অবৈধতা খুঁজে পায়।

তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় আসার পর যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বন্ধ করে দেন। যাদের নাগরিকত্ব বাতিল করা হয়েছিল তাদের নাগরিকত্ব ফেরত দেন জিয়াউর রহমান। জিয়ার শাসনামলের সংবাদপত্র খুঁজে দেখেন পাবেন।

এর আগে এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে বলেন, সরকারের বৈধতা নিয়ে যারা প্রশ্ন করেছে তারা কারা? যারা এ প্রশ্ন করেছে তাদের বৈধতা কী? যে দল এ প্রশ্ন করেছে তাদের জন্মবৃত্তান্ত কী?

You Might Also Like