দক্ষিণ চীন সাগর নিয়ে চীনের বিরুদ্ধে মার্কিন হুঁশিয়ারি

দক্ষিণ চীন সাগরকে কেন্দ্র করে চীনের বিরুদ্ধে  হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে আমেরিকা।  দক্ষিণ চীন সাগরে বেইজিং ‘অস্থিতিশীলতা সৃষ্টিকারী তৎপরতা’ চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করে  মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী চাক হ্যাগেল আজ (শনিবার) বলেছেন, আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন  করা হলে আমেরিকা নীরব থাকবে না।

সিঙ্গাপুরে বার্ষিক নিরাপত্তা বিষয়ক সম্মেলন শানগির লা সংলাপে এ হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি।  এ সংলাপে এশিয়ার অন্যান্য  দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রী, সেনা কর্মকর্তা, কূটনীতিবিদ এবং নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা অংশ নিয়েছেন। চীনের উচ্চ পর্যায়ের সামরিক প্রতিনিধিদলও এ সম্মেলনে অংশ নিয়েছে।

আমেরিকা তার মিত্র ও বন্ধুদের দেয়া প্রতিশ্রুতি বজায় রাখবে উল্লেখ করে চাক হ্যাগেল আন্তর্জাতিক বিরোধগুলোর শান্তিপূর্ণ সমাধানের আহ্বান জানান। তিনি দাবি করেন, সাম্প্রতিক মাসগুলোতে দক্ষিণ চীন সাগরের ওপর বেইজিং নিজের দাবি প্রতিষ্ঠার একতরফা তৎপরতার মাধ্যমে অস্থিতিশীলতা সৃষ্টি করছে। এ সময় দক্ষিণ চীন সাগরে ভিয়েতনামের সঙ্গে বিরোধপূর্ণ অঞ্চলে চীনের তেল রিগ স্থাপন এবং দু’টি দ্বীপে ফিলিপাইনের গতিবিধি নিয়ন্ত্রণের বিষয়টি তুলে ধরেন চাক হ্যাগেল। সীমান্ত নিয়ে বিরোধে আমেরিকা পক্ষ নেয় না বলে দাবি করে তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক নীতিমালা কোনো চ্যালেঞ্জের মুখে পড়লে আমেরিকা বিষয়টি অন্যভাবে দেখবে।

এশিয়ার চারটি দেশ ব্রুনাই, মালয়েশিয়া, ফিলিপাইন এবং ভিয়েতনাম দক্ষিণ চীন সাগরের কিছু কিছু অংশের ওপর নিজেদের অধিকার দাবি করছে। কিন্তু বেইজিং-এর বিরুদ্ধে এ নিয়ে শক্ত অবস্থান নিয়েছে শুধুমাত্র ম্যানিলা ও হ্যানয়।  এ ছাড়া, দক্ষিণ চীন সাগরের কিছু অংশের ওপর ষষ্ঠ দেশ হিসেবে দাবি তুলেছে তাইওয়ান।

You Might Also Like