১১৫ কোটি ডলারের যুদ্ধসরঞ্জাম কিনছে সৌদি আরব

যুক্তরাষ্ট্রের কাছ থেকে ১১৫ কোটি ডলার মূল্যের ট্যাংক ও যুদ্ধসরঞ্জাম কিনছে সৌদি আরব। যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র বিভাগ এর অনুমোদন দিয়েছে।

অনুমোদনের কথা নিশ্চিত করে মঙ্গলবার প্রতিরক্ষা সদর দপ্তর পেন্টাগন জানিয়েছে, ১৩০টি আবরামস যুদ্ধট্যাংক, যুদ্ধে ব্যবহৃত ২০টি গাড়িসহ অন্যান্য যুদ্ধসরঞ্জাম বিক্রি করা হবে সৌদি আরবের কাছে।

বিদেশে অস্ত্র বিক্রি পর্যবেক্ষণকারী যুক্তরাষ্ট্রের ‘প্রতিরক্ষ নিরাপত্তা সমন্বয় সংস্থা’ জানিয়েছে, অস্ত্র বিক্রির মাধ্যমে আঞ্চলিক মিত্র দেশের নিরাপত্তার উন্নতি ঘটবে এবং তা যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তায় অবদান রাখবে।

তারা আরো জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশযান, অস্ত্র ও যুদ্ধসরঞ্জামসহ প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম নির্মাণ কোম্পানি জেনারেল ডাইনামিকস এ কাজের ঠিকাদারী পাবে। উল্লেখ্য, প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম নির্মাণে বিশ্বে পঞ্চম শীর্ষস্থানীয় কোম্পানি এটি।

প্রতিরক্ষ নিরাপত্তা সমন্বয় সংস্থা তাদের ওয়েবসাইটে এক নোটিশে আইনপ্রণেতাদের উদ্দেশে জানিয়েছে, এসব যুদ্ধসরঞ্জাম যুক্তরাষ্ট্রের বাহিনীগুলোর সঙ্গে সৌদি আরবের রয়্যাল সৌদি ল্যান্ড ফোর্সের (স্থলবাহিনী) অভ্যন্তরীণ অভিযান ক্ষমতা বাড়াবে। সৌদি আরবের নিরাপত্তায় যুক্তরাষ্ট্র পাশে থাকতে পারবে এবং তাদের সশস্ত্র বাহিনীর আধুনিকায়ন হবে।

পররাষ্ট্র বিভাগ অনুমোদন দিলেও সৌদি আরবের কাছে যুদ্ধসরঞ্জাম বিক্রি করতে কংগ্রেসের অনুমোদন লাগবে। কংগ্রেসে বিষয়টি স্থগিতও হয়ে যেতে পারে।

সৌদি আরব ও তার উপসাগরীয় মিত্র দেশগুলো মিলে ইয়েমেনে শিয়াপন্থি হুতি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে হামলা চালাচ্ছে। তারা ইয়েমেনের সুন্নিপন্থি প্রেসিডেন্ট আব্দ-রাব্বু মানসুর হাদি সরকারের পক্ষে।

You Might Also Like