রাসেল-সাকিবের দুর্দান্ত পারফর্মে ফাইনালে জ্যামাইকা

আন্দ্রে রাসেলের দুর্দান্ত সেঞ্চুরি ও সাকিব আল হাসানের ওভার হ্যাটট্রিকে ক্যারিবীয়ান প্রিমিয়ার লিগের (সিপিএল) ফাইনালে পৌঁছে গেছে জ্যামাইকা তালাওয়াস। বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচে ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে ১৯ রানে জয় পায় জ্যামাইকা।

জ্যামাইকা নির্ধারিত ২০ ওভারে ১৯৫ রানের বিশাল স্কোর করে। পরে ত্রিনবাগো ব্যাটিংয়ে নামলে বৃষ্টি বাধা হয়ে দাঁড়ায়। তাতে খেলা বেশ সময় বন্ধই থাকে। বৃষ্টি থামলে ডার্কওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে ডোয়েন ব্রাভোদের সামনে ১২ ওভারে ১৩০ রানের টার্গেট দাঁড়ায়। শেষ পর্যন্ত তারা ১২ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে তোলে ১১০ রান।

বৃষ্টির আগে ত্রিনবাগের স্কোর ছিল ১৮ রানে এক উইকেট। পরে ব্যাটিংয়ে নেমে হাশিম আমলা ও কলিন মুনরো বেশ সতর্ক ব্যাটিং করতে থাকেন। কিন্তু দলীয় ৬৭ রানে মুনরোকে ফেরান জ্যামাইকার পাকিস্তানের বোলার ইমাদ ওয়াসিম।

দলীয় ১১তম ওভারে বাজিমাত করেন বাংলাদেশি তারকা সাকিব। দ্বিতীয় বলে ব্যক্তিগত ৩৭ রানে দারুণ ব্যাট করা আমলাকে সাঙ্গাকারার তালুবন্দি করান সাকিব। চতুর্থ বলে বাঁহাতি এ স্পিনারের শিকার হন সুনিল নারাইন আর ওভারের শেষ বলে ত্রিনবাগোর অধিনায়ক ব্রাভোকে আউট করে ওভার হ্যাটট্রিক করেন সাকিব।

সাকিব দুই ওভার বল করে ২৩ রানের বিনিময়ে তিনটি উইকেট তুলে নেন। দলের হয়ে আরও দুটি উইকেট পান রাসেল। ওয়াসিম তুলে নেন একটি উইকেট।
gold
এর আগে টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে চাদউইক ওয়ালটন ও অধিনায়ক ক্রিস গেইল উদ্বোধনী জুটিতে ৩৮ রান তোলেন। কিন্তু ব্যক্তিগত ৩৫ রান করে প্যাভিলিওনে ফেরেন গেইল। এরপর জ্যমাইকা দ্রুতই লঙ্কান গ্রেট কুমার সাঙ্গাকারা ও রোভম্যান পাওয়েলের উইকেট হারায়।

পঞ্চম উইকেট জুটিতেই মূলত বড় সংগ্রহের ভীত গড়ে জ্যামাইকা। এ সময় বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের সঙ্গে ১০১ রানের জুটি গড়েন রাসেল। যদিও এ জুটিতে অলরাউন্ডার রাসেলেরই কৃতিত্ব ছিল বেশি। ডানহাতি ব্যাটসম্যান রাসেল ৪৪ বলে তিনটি চার ও ১১টি বিশাল ছক্কায় ১০০ রান করে আউট হন। সাকিবের ব্যাট থেকে আসে ১৯ রান।

আগামী ০৭ আগস্ট গায়না অ্যামাজন ওয়ারিওর্সের বিপক্ষে ফাইনালে নামবে সাকিব-গেইলগের জ্যামাইকা।

You Might Also Like