মাদকহাট উচ্ছেদে ব্যর্থতার কারণে ওসিকে অব্যাহতি

৭২ ঘণ্টার আল্টিমেটাম শেষে ওসি রঞ্জন সামন্তকে দক্ষিণ সুরমা থানার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। বেঁধে দেওয়া আল্টিমেটামের মধ্যে ওসি কার্যকর পদক্ষেপ না দেখাতে পারায় পুলিশ কমিশনার শেখ মিজানুর রহমান এ ব্যবস্থা নিয়েছেন। বুধবার সকালে বদলির এ আদেশ থানায় পাঠানো হয়।

২৪ মে শনিবার দুপুর ১২টায় দক্ষিণ সুরমা থানায় আয়োজিত ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠানে দক্ষিণ সুরমা থানার ঘটিত অপরাধ কর্মকাণ্ডের বিস্তারিত তুলে ধরেন ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর তৌফিক বক্স লিপন।

কাউন্সিলরের তুলে ধরা অপরাধ কর্মকাণ্ডের বিবরণ শুনে পুলিশ কমিশনার ওসি রঞ্জন সামন্তকে উদ্দেশ্য করে বলেছিলেন, “রঞ্জন সামন্ত, তোমাকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মাদকহাটগুলো উচ্ছেদ করতে হবে, তিন তাসের জুয়া বন্ধ করতে হবে। আর না পারলে আমি উপস্থিত সবার সম্মুখে ঘোষণা করছি, তোমাকে ৭২ ঘণ্টার পরই আমি পুলিশ লাইনে ক্লোজড করে দেব।”

পুলিশ কমিশনারের বেঁধে দেওয়া সময় মঙ্গলবার পার হলেও দক্ষিণ সুরমা থানার ওসি রঞ্জন সামন্ত মাদকের আস্তানা উচ্ছেদে ব্যর্থ হন। চিহ্নিত আস্তানাগুলোতে তিনি কোনো অভিযানও করেননি বলে অভিযোগ করেছেন স্থানীয় লোকজন।

এ ব্যাপারে সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মো. রহমত উল্লাহ জানান, কমিশনার জনগণকে দেওয়া তার কথা রেখেছেন। মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে ব্যর্থ হওয়ায় ওসি রঞ্জন সামন্তকে দক্ষিণ সুরমা থানা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। শিগগিরই দক্ষিণ সুরমা থানায় নতুন ওসি যোগদান করবেন।

You Might Also Like