হজযাত্রীদের জন্য ইলেকট্রনিক কবজি বেল্ট

হজযাত্রীদের উন্নত সেবা নিশ্চিতসহ হজ পালনরত অবস্থায় হারিয়ে যাওয়া ব্যক্তিদের শনাক্ত করার পরিকল্পনা করেছে সৌদি সরকারের হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয়।

পরিকল্পনা অনুযায়ী, প্রত্যেক হজযাত্রীর ইলেকট্রনিক কবজি বেল্ট ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এ কবজি বেল্টের মাধ্যমে হারানো ব্যক্তির অবস্থান শনাক্ত করা যাবে। স্বেচ্ছাসেবকরা তাদের গন্তব্যে পৌঁছে দিতে পারবেন।

গত সপ্তাহে সৌদির জেদ্দায় বাংলাদেশ হজ অফিসের কাউন্সিলর মুহাম্মদ মাকসুদুর রহমান ধর্ম মন্ত্রণালয়কে এ বিষয়টি জানিয়ে চিঠি দিয়েছেন। চিঠি পাওয়ার পর গত রোববার এক চিঠিতে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব (হজ -১) মোহাম্মদ রুহুল আমিন হজ এজেন্সিস অব বাংলাদেশ (হাব) নেতাদের কবজি বেল্ট ব্যবহার বাধ্যতামূলক করতে চিঠি দিয়েছেন।

এ বিষয়ে ধর্ম মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলেন, এ বছর ১ লাখ ১ হাজার ৭৫৮ জন বাংলাদেশি হজ পালন করবেন। এর মধ্যে বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ৯১ হাজার ৭৫৮ জন এবং সরকারি ব্যবস্থাপনায় ১০ হাজার। হজ পালনরত অবস্থায় হারিয়ে যাওয়া হজযাত্রীদের কবজি বেল্টের মাধ্যমে অবস্থান শনাক্ত করা যাবে। এরপর স্বেচ্ছাসেবকরা তাদের গন্তব্যে পৌঁছে দিতে পারবেন।কবজি বেল্টে হজযাত্রীদের নাম ঠিকানাসহ প্রয়োজনীয় সকল তথ্য-উপাত্ত সংরক্ষিত থাকবে।

ধর্ম মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় আশকোনা হজ ক্যাম্পে হজ কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ ছাড়া হজ ফ্লাইট ৪ আগস্ট শুরু হয়ে চলবে ৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। আর ফিরতি ফ্লাইট ১৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয়ে ১৬ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে।

আগামী ১২ সেপ্টেম্বর (৯ জিলহজ) হজ হওয়ার কথা রয়েছে। এজন্য থাকবে বিমানের ১১২টি বিশেষ ফ্লাইট ও ৩২টি নির্ধারিত ফ্লাইট। আর ফিরতি যাত্রীদের জন্য থাকবে ১০৫টি বিশেষ ফ্লাইট ও ২৯টি নির্ধারিত ফ্লাইট।

You Might Also Like