বিদেশি সামরিক সহায়তার কোনো প্রয়োজন আমাদের নেই: ইরাক

ইরাকি প্রধানমন্ত্রীর মুখপাত্র বলেছেন, সন্ত্রাসীদের মোকাবেলার জন্য বিদেশি সামরিক সহায়তার কোনো প্রয়োজন সেদেশের নেই। আল সুমারিয়ে নিউজ চ্যানেল জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রী হায়দার আল এবাদির তথ্যকেন্দ্রের মুখপাত্র সাদ আল হাদিসে আজ এক বিবৃতিতে এ কথা জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, যদিও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে চলমান যুদ্ধে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সমর্থনের প্রয়োজন রয়েছে কিন্তু দায়েশ সন্ত্রাসীদের মোকাবেলার জন্য বিদেশি সামরিক উপস্থিতির প্রয়োজন নেই।

প্রধানমন্ত্রীর মুখপাত্র আরো বলেছেন, ইরাকি সেনা ও স্বেচ্ছাসেবী বাহিনী বাগদাদের উপকণ্ঠে আল কারাদে এলাকাসহ দেশের অন্যান্য স্থানে তৎপর সন্ত্রাসীদের মোকাবেলা করতে সক্ষম হয়েছে। তিনি বলেন, এ পর্যন্ত এক হাজারের বেশি সন্ত্রাসীকে হত্যা করা হয়েছে।

মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রী অ্যাশ্টোন কার্টার গত ১১ জুলাই বলেছিলেন, সন্ত্রাসীদের কবল থেকে মসুল শহর উদ্ধারের জন্য আমেরিকা আরো প্রায় ৫৬০ সেনা ইরাকে পাঠাবে। মার্কিন প্রতিরক্ষামন্ত্রীর এ ঘোষণায় ইরাকের রাজনৈতিক অঙ্গনে তীব্র প্রতিক্রিয়া হয়।

ইরাকের প্রভাবশালী শিয়া নেয়া মুক্তাদা সাদর অভিযোগ করেছেন, আমেরিকাই দায়েশ সন্ত্রাসীদেরকে ইরাকে পাঠিয়েছে। তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, বিদেশি সেনারা যদি ইরাকে সামরিক হস্তক্ষেপ করে তাহলে তাদেরকেও আগ্রাসী শক্তি হিসেবে বিবেচনা করা হবে।

সম্প্রতি ইরাকের সেনা ও গণবাহিনী সন্ত্রাসীদের দখল থেকে ফালুজা ও রামাদিসহ আরো গুরুত্বপূর্ণ শহর উদ্ধার করতে সক্ষম হয়েছে।

You Might Also Like