ম্যাঙ্গো’র ১১টি মডেল

ম্যাঙ্গো ডিজিটাল লিমিটেড বাংলাদেশের গ্রাহকদের জন্য নিয়ে এলো নতুন হ্যান্ডসেট ‘ম্যাঙ্গো’। বুধবার (২০ জুলাই) রাজধানীর একটি হোটেলে হ্যান্ডসেটটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। ম্যাঙ্গো ডিজিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল খায়ের, পরিচালক মোয়াম্মের হোসেন খান, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মো. ওহাব খান, এবং মহাব্যবস্থাপক, মার্কেটিং তৌফিকুল আলম অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

ক্রমবর্ধমান ভোক্তা চাহিদা পূরণের লক্ষ্যে হ্যান্ডসেটের বাজারে প্রবেশ করা ম্যাঙ্গো ডিজিটালের নতুন এই ১১টি মডেলের মধ্যে রয়েছে ৫টি স্মার্টফোন এবং ৬টি ফিচার ফোন।

আধুনিক প্রযুক্তি আর প্রয়োজনীয় ফিচারের সমন্বয়ে তৈরি স্মার্টফোনগুলো ই৫০, ই৬০, গেলিথিয়া, রিও এবং ফ্ল্যাগশিপ ই৩০।

যার মধ্যে ই৩০‘এ রয়েছে অক্টাকোর ১.৩ গিগাহার্টজ প্রসেসর, নিখুঁত সিএনসি কাট মেটাল বডি, ১৬ জিবি রম এবং ৩ জিবি ৠাম, ১৩ মেগাপিক্সেল ফাস্ট ফোকাস রিয়ার ক্যামেরা, ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরাসহ ক্যামেরার বিভিন্ন ফাংশন এবং আকর্ষণীয় সব ফিচার।

এর ব্যাটারি ২২০০ এমএএইচ।

ই৫০ এর সঙ্গে থাকছে একটি ভিআর হেডসেট ফ্রি।

সাধারণ ব্যবহারকারীদের উপযোগী করে তৈরি ফিচার ফোন মডেলগুলো “কে১০, ফজলি, ডব্লিউ২২০, ডব্লিউ২৫০, ডব্লিউ২২২ এবং কে২০”।

অডিও-ভিডিও প্লেয়ার, এফএম রেডিও, ব্লুটুথ, টর্চ সহ দরকারী সুবিধাগুলো রয়েছে সাশ্রয়ী মূল্যের এ ফোনগুলোতে।

৮৫০ টাকা থেকে শুরু করে ১৫,০০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যাবে মডেলগুলো।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, বর্তমান বাজারে গ্রাহকরা সাশ্রয়ী মূল্যে ভালোমান ও ফিচারসম্পন্ন মোবাইল ফোন প্রত্যাশা করেন। তাদের সেই প্রত্যাশা পুরণে ম্যাংগোর মূল লক্ষ্য গুণগত মান বজায় রেখে গ্রাহকদের মাঝে মোবাইল ডিভাইস পৌঁছে দেওয়া।

পাশাপশি গ্রাহকদের কাছে সহজ বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিত করা। যে কারণে দেশব্যাপী ২০টি কাস্টমার কেয়ার সেন্টার ও ৭০টি কালেকশন পয়েন্ট বসানো হয়েছে। যখোনে গ্রাহকরা সর্বোচ্চমানের সেবা নিতে পারবেন ।

মোবাইল ফোন প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানটির পর্যায়ক্রমে সব পর্যায়ের গ্রাহকদের জন্য আরো বিভিন্ন মডেল প্রকাশের ইচ্ছা রয়েছে।

You Might Also Like