বন্ধুত্বের পরামর্শ দিতে ফেসবুক

<সময় ডেস্কঃ ফেসবুকের নতুন ফিচার ‘পিপল ইউ মে নো’। এটি ব্যবহারকারীদের বন্ধুত্বের বিষয়ে পরামর্শমূলক তথ্য প্রদান করে। সোশ্যাল জায়ান্ট এজন্য ব্যবহারকারীদের মুঠোফোনের অবস্থান পর্যবেক্ষণ করে। কিন্তু কার্যক্রমটি নিয়ে রয়েছে বিভিন্ন কথা।

অবশ্য ফেসবুক স্পষ্ট করেই বলছে যে, অবস্থান শনাক্তের বিষয়টি কেবলই ব্যবহারকারীদেরকে বন্ধুত্বের বিষয়ে কিভাবে পরামর্শ দেয়া যায় তাই। ফিউশন ডটনেট এমন তথ্য দিয়ে খবর প্রকাশ করেছে।

ফিচারটি সম্পর্কে আরো বলা হয়েছে, ব্যবহারকারীদের মুঠোফোনের জিপিএস তথ্য পর্যবেক্ষণের পর কাছাকাছি থাকা অন্য ব্যবহারকারীদেরকে বন্ধুত্বের পরামর্শ দেয়া হয়।

এর মাধ্যমে পরিচিত, অপরিচিত, নাম অজানা ব্যক্তিদের ছবি প্রদর্শিত হয়। ফলে এখন পর্যন্ত শুধু মুখ চেনা কিন্তু তাদের সমস্তটা অজানা যেটা জানা যাবে এই সেবার মাধ্যমে।

ফেসবুকের এক মুখমাত্র অবস্থান পর্যবেক্ষণের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পিপল ইউ মে নো ফিচারে ব্যবহারকারীরা অনেক পরিচিতদেরকেও খুঁজে পাচ্ছে। ব্যবহারকারীর পারস্পরিক বন্ধু, ইন্টারনেট যোগাযোগের পরিচয় সমূহ, নেটওয়ার্ক, শিক্ষা, কর্মস্থল বিষয়ক তথ্যাদি অনুযায়ী বন্ধুত্বের পরামর্শ পাঠানো হয়।

এই সেবার মাধ্যমে তোমরা মাঝেমধ্যে দেখার সুযোগ পাবে কারা তোমাকে চেনেনা বা তোমরা সাথে বন্ধুত্ব করতে চাইনা।

তবে বন্ধুত্বের পরামর্শের জন্য ব্যবহারকারীর অবস্থান একমাত্র মাপ কাঠি নয়। কেননা দুজনের মধ্যে কিছু বিষয়ের মিল থাকে।

আইওএস প্লাটফর্মে অ্যাপটি থেকে ফ্রেন্ড সাজেশনস না দেখার দিকটি নির্বাচন করা যাবে এবং অ্যান্ড্রয়েড এম ব্যবহারকারীরা লোকেশন অ্যাকসেস নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন।

বলা হচ্ছে, ব্যবহারকারীদের উপর ফেসবুকের নজরদাড়ির অভিযোগ নতুন নয়। সম্প্রতি যুক্তরাজ্যের ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানায় ‘বিজ্ঞাপন’ প্রদর্শনের জন্য ব্যবহারকারীদের আলাপচারিতও পর্যবেক্ষণ করে ফেসবুক।

তবে ব্যবহারকারীদের অনুমতি সাপেক্ষে শুধু মাইক্রোফোন সংযুক্তের বিষয়টি ছাড়া সকল অভিযোগ অস্বীকার করে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ।

You Might Also Like