ঢাকা হামলার ঘটনায় ক্ষমা চেয়ে নিবরাসের বাবা-মায়ের বিবৃতি

এখন সময় ডেস্কঃ গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্তোরাঁয় সন্ত্রাসী হামলায় জড়িত নিবরাস ইসলামের বাবা-মা স্বজনহারা মানুষ, দেশবাসী ও রাষ্ট্রের কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করে বিবৃতি দিয়েছেন।

নিবরাসের বাবা নজরুল ইসলাম ও মা লায়লা বিলকিস বিবৃতিতে যারা তরুণদের বিপথগামী করছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন।

বিবৃতিটিতে বলা হয়, ‘আমরা লজ্জিত ও ক্ষমাপ্রার্থী। আমাদের ছেলে নিবরাস সৎ, বিনয়ী ও শান্ত স্বভাবের ছেলে ছিল। উত্তরায় তার যারা সহপাঠী ছিল, তাদের প্রত্যেকের কাছ থেকে একই রকম উত্তর পাওয়া যাবে। সে নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ত। সেখান থেকে উন্নত শিক্ষার জন্য মালয়েশিয়ার মোনাস বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হয়। ২০১৫ সালের অক্টোবর মাসে সে বাংলাদেশে আসে এবং ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারির ৩ তারিখে নিখোঁজ হয়। যাওয়ার সময় সে একটি চিরকুট লিখে যায়, বলে তার জন্য দোয়া করতে। সে ফিরে আসবে।’

বিবৃতিতে নিবরাসের বাবা-মা আরো বলেন, ‘ছেলে নিখোঁজ হওয়ায় আমরা অত্যন্ত উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ি। আমরা দেশের গোয়েন্দা সংস্থাকে এ ব্যাপারে জানাই। তার সঙ্গে আরো যারা নিখোঁজ হয় তাদের পরিবারও জিডিতে নিবরাসের নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি উল্লেখ করে। গত পাঁচ মাস সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়েও নিবরাসকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। ফেসবুকে তাকে ফিরে আসার জন্য আমরা অনেক অনুনয়-বিনয় করি। কিন্তু সব চেষ্টাই ব্যর্থ হয়। অবশেষে গত ২ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারির হামলায় সে জড়িত ছিল বলে আমরা জানতে পারি। আমাদের ছেলে এই হামলায় জড়িত, বিষয়টি জানতে পেরে আমরা লজ্জিত, দুঃখিত এবং ক্ষমাপ্রার্থী। যারা স্বজন হারিয়েছেন, বন্ধুকে হারিয়েছেন, নিবরাসের বাবা-মা হিসেবে তাদের প্রতি শোক প্রকাশের ভাষা আমাদের জানা নেই।’

তারা বলেন, ‘নিবরাস নিজে হাতে ভাত মেখে খেতে পারত না। সেই ছেলের হাতে যারা অস্ত্র, গোলা-বারুদ তুলে দিল, আল্লাহর দরবারে তাদের বিরুদ্ধে নালিশ জানাই। আমরা বিশ্বাস করি, যারা নিবরাসের মতো তরুণদের বিপথগামী করছে, তাদের প্রত্যেককে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী গ্রেপ্তার করে কঠোর সাজা দেবে। সবশেষে আমরা আবারও ক্ষমা চাই, পুরো জাতি, দেশের মানুষ ও বিশ্ববাসীর কাছে।’

You Might Also Like