পুঁচকে দলের বিপক্ষে হারায় ম্যারাডোনার খোঁচা

স্পোর্টস ডেস্কঃচলমান ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে ইতোমধ্যেই বিদায় নিয়েছে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন স্পেন, ক্রোয়েশিয়া, সুইডেন, সুইজারল্যান্ড, পোল্যান্ডের মতো ফেভারিট দেশ। তবে, আলোচনা বেশি হচ্ছে ওয়েইন রুনির ইংল্যান্ডের বিদায়ে। পুঁচকে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে হেরে নকআউট পর্ব থেকে বিদায় নিতে হয় ইংলিশদের।

ইংলিশদের বিদায়ে ‘থ্রি লায়ন্স’ খ্যাত দলটিকে সমালোচনা করার সুযোগ ছেড়ে দেননি আর্জেন্টিনার ১৯৮৬’র বিশ্বকাপ জয়ী তারকা দিয়েগো ম্যারাডোনা।

৮৬’র বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ২-১ গোলে জয় পায় ম্যারাডোনার আর্জেন্টিনা, আর বিদায় নেয় ইংলিশরা। সে ম্যাচেই বিখ্যাত ‘হ্যান্ড অব গড’ গোল করেছিলেন ম্যারাডোনা। ম্যারাডোনার ‘হ্যান্ড অব গড’ বা ‘ঈশ্বরের হাতে গোল’ নিয়ে কম বিতর্ক হয়নি। সে ম্যাচে ‘চিরশত্রু’ ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সেই দুটো গোলই করেন ম্যারাডোনা।
lose
এবারের ইউরো আসরে অপেক্ষাকৃত দুর্বল দল আইসল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ ষোলোর ম্যাচে ২-১ গোলে হারায় ইংলিশদের সমালোচনা করে আর্জেন্টাইন ফুটবল কিংবদন্তি জানান, ‘ইংলিশদের ফুটবলে মেধার ঘাটতি রয়েছে’।

১৬ বছর আগের ১৯৮৬’র বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক বলেন, ইংল্যান্ডের জন্য এমন ফলাফল সত্যিই হতাশার। ম্যাচটিতে আইসল্যান্ডকেই নেতৃত্বের ভূমিকায় দেখা গেছে। প্রতিপক্ষকে তারাই নিয়ন্ত্রণ করেছে। ইংল্যান্ড তাদের পারফরম্যান্সে কৃত্রিম উত্তেজনার ভাব তৈরি করলেও তাদের ফুটবলের পারফর্মে ঘাটতি ছিল। ইস্পাতের মতো দৃঢ় হলেও ফুটবলে তাদের মেধার ঘাটতি রয়েছে।

আইসল্যান্ড প্রথমবারের মতো কোনো বড় টুর্নামেন্টে খেলতে এসেই উঠেছে কোয়ার্টার ফাইনালে। শেষ ষোলোতে ফেভারিট ইংল্যান্ডকে বিদায় করে যেন রূপকথার জন্ম দিয়েছে। এর আগে পর্তুগাল, অস্ট্রিয়া, হাঙ্গেরির মতো দলের সামনেও ভড়কে যায়নি দেশটি। এবার কোয়ার্টারে তাদের সামনে স্বাগতিক ফ্রান্স।

আইসল্যান্ডের প্রশংসা করে ম্যারাডোনা যোগ করেন, আমি অবাক হবো না যদি তারা কোয়ার্টারে ফ্রান্সকে হারিয়ে সেমি ফাইনালে উঠে। দুর্দান্ত খেলে চলেছে পুঁচকে এই দলটি।

You Might Also Like