রংপুর সিটি মেয়র পেলেন প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদা

রংপুর সিটি করপোরেশনের (রসিক) মেয়র সরফুদ্দীন আহম্মেদ ঝন্টুকে প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদা দিয়েছে সরকার। বুধবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ এ সংক্রান্ত আদেশ জারি করেছে।

স্ব পদে অধিষ্ঠিত থাকাকালে সরফুদ্দীন আহম্মেদ প্রতিমন্ত্রীর পদমর্যাদা, বেতন-ভাতা ও আনুষঙ্গিক অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা প্রাপ্য হবেন বলে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের আদেশে বলা হয়েছে।

এর আগে গত ২১ জুন ঢাকা উত্তর সিটির মেয়র আনিসুল হক ও দক্ষিণ সিটির মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকনকে মন্ত্রীর পদমর্যাদা এবং নারায়ণগঞ্জের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীকে উপ-মন্ত্রীর মর্যাদা দেওয়া হয়।

স্ব স্ব পদে অধিষ্ঠিত থাকাকালে তারা সংশ্লিষ্ট পদমর্যাদা, বেতন-ভাতা ও অন্যান্য আনুষঙ্গিক সুবিধা পাবেন।

মুক্তিযোদ্ধা সরফুদ্দিন আহমেদ নবগঠিত রংপুর সিটি করপোরেশনের প্রথম নির্বাচিত মেয়র। ২০১২ সালের ১২ জুন সিটি করপোরেশন প্রথম নির্বাচনে এ আওয়ামী লীগ নেতা নাগরিক কমিটির প্রার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করে নির্বাচিত হন। তিনি বাংলাদেশে প্রথম ব্যক্তি যিনি একাধারে উপজেলা, পৌরসভা, সংসদ সদস্য ও সিটি মেয়র নির্বাচিত হন।

১৯৫২ সালের ৭ জুলাই রংপুরের ইঞ্জিনিয়ার পাড়ায় জন্ম নেয়া ঝন্টু ১৯৬৭ সালে রংপুর জিলা স্কুল থেকে দু’টি বিষয়ের ওপর স্টার মার্ক নিয়ে মেট্রিক পরীক্ষায় প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ হন। তিনি প্রথম বিভাগে এইচএসসি এবং রংপুর সরকারি কলেজ থেকে বি. কম পাস করেন।

তিনি আশির দশকের শুরু থেকে রাজনীতিতে যোগ দিয়ে দীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে মাঠ পর্যায় থেকে ১৯৮৭ সালে প্রথম উপজেলা নির্বাচনে অংশ নিয়ে প্রথম উপজেলা চেয়ারম্যান, ১৯৯২-১৯৯৮ সাল পর্যন্ত পৌরসভা চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। ১৯৯৬ সালে জাতীয় নির্বাচনে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

You Might Also Like