দুই সন্তান জন্ম দেয়ার জন্য আইন প্রয়োজন; গিরিরাজ সিং: মুসলমানরাই টার্গেট

এখন সময় ডেস্কঃভারতের কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারের মন্ত্রী গিরিরাজ সিং বলেছেন, দেশে দুই সন্তান জন্ম দেয়ার জন্য আইন তৈরি করা প্রয়োজন।

আজ (শুক্রবার) গণমাধ্যমে প্রকাশ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিং উত্তর প্রদেশের মথুরায় এক অনুষ্ঠানে দেশে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের ওপর জোর দিয়ে বলেন, ‘দেশে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য সকলের জন্য সর্বোচ্চ দুই সন্তান জন্ম দেয়ার জন্য আইন তৈরি করা উচিত।’

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ, ইন্দোনেশিয়া এবং মালয়েশিয়া জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের জন্য কাজ করছে, কিন্তু ভারতে এ নিয়ে ভোটের রাজনীতি শুরু হয়ে যায়।’

সপা শাসিত উত্তর প্রদেশ সম্পর্কে গিরিরাজ সিং বলেন, ‘এটা দেশের দুর্ভাগ্য যে, এখানে হিন্দুদের পলায়ন করতে হচ্ছে। দেশ ভাগের সময় কেউ এটা চিন্তাও করেনি যে, এরকম পরিস্থিতিও চলে আসবে। দেশের অনেক গ্রাম কাইরানাতে পরিণত হয়েছে।’

গত এপ্রিলেও গিরিরাজ সিং বিহারে এক অনুষ্ঠানে মন্তব্য করেন, ‘দেশের জনসংখ্যা নীতি বদলে দুই সন্তান নীতি বাধ্যতামূলক করা না হলে একদিন ‘আমাদের মেয়েরা’ ‘নিরাপদে’ থাকতে পারবে না, পাকিস্তানের মতো তাদেরও ‘পর্দার আড়ালে’ লুকিয়ে থাকতে হবে!’

গিরিরাজ বলেন, ‘বিহারে এমন সাতটি জেলা আছে যেখানে আমাদের সংখ্যা কমেছে। এটা উদ্বেগের ব্যাপার। জনসংখ্যা নীতির বদল হলেই আমাদের মেয়েরা নিরাপদে থাকবে। নয়ত, পাকিস্তানের মতো আমাদেরও ঘরের মেয়েদের পর্দার আড়ালে রেখে দিতে হবে।’ তিনি বলেন, ‘হিন্দুদের দুটি ছেলে হলে, মুসলিমদেরও দু’টি সন্তান থাকা উচিত৷’

তার দাবি, স্বাধীনতার পরে দেশে ৯০ শতাংশ হিন্দু জনসংখ্যা ছিল, আজ তা কমে ৭২ থেকে ৭৪ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। দেখা যাচ্ছে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ গত দুই মাসের মধ্যে দুই বার দুই সন্তান জন্ম দেয়া নিয়ে আইন তৈরি করার জন্য সাফাই দিলেন।

তবে মুসলমানদেরকে বেশি সন্তান নেয়া থেকে বিরত রাখার লক্ষ্যেই বিজেপি সরকারের এ মন্ত্রী দুই সন্তান জন্ম দেয়ার জন্য আইন তৈরির আহবান জানিয়েছেন বলে অনেক বিশেষজ্ঞ মনে করছেন।

You Might Also Like