দেশকে ধর্ম এবং বর্ণের নামে বিভক্ত করা হচ্ছে: সিসোদিয়া

এখন সময় ডেস্কঃ ভারতের দিল্লির উপ-মুখ্যমন্ত্রী মনীষ সিসোদিয়া আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রতি ইঙ্গিত করে বলেছেন, বিভেদ সৃষ্টিকারী রাজনীতিতে যারা বিশ্বাস করে তারা কখনো ‘যোগী’ হতে পারে না।

মনীষ সিসোদিয়া আজ (মঙ্গলবার) একের পর এক টুইটার বার্তায় পরোক্ষভাবে প্রধানমন্ত্রীর তীব্র সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ‘যোগ ব্যায়ামের বিশ্বব্যাপী স্বীকৃতি গৌরবের কথা। কিন্তু যোগব্যায়ামের অর্থ সড়ক বা পার্কে জড়ো হয়ে পিটি অনুশীলন করা নয়।’

তিনি বলেন, ‘যোগ ব্যায়ামের অর্থ ভাঙ্গা নয়, যুক্ত করা। হিন্দু- মুসলিম এবং বিভিন্ন সম্প্রদায়কে বিভক্তকারী কখনো ‘যোগী’ হতে পারে না। আমাদের যোগ ব্যায়াম নিয়ে গর্ব করার অধিকার তখনই হবে, যখন দেশকে ভাঙ্গা নয়, বরং দেশকে সংযুক্ত করার কাজ শুরু করব। আজ দেশকে ধর্ম এবং জাতির নামে বিভক্ত করা হচ্ছে।’

সিসোদিয়া বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীকেও যোগ দিবসের শুভেচ্ছা। তার প্রচেষ্টায় যোগ খ্যাতি লাভ করেছে। যদিও রাজ্যের নির্বাচিত সরকারকে ভাঙ্গায় কিসের যোগ?’

তিনি বলেন, ‘পাঞ্জাব সরকারে আপনাদের সাথীরা মাদক ব্যবসা চালিয়ে সমাজের মেরুদন্ড ভেঙে দিচ্ছে। সেখানেই আপনি যোগ ব্যায়ামের কথা বলছেন, এরকম যোগ ব্যায়ামে কী ফায়দা হবে?’

আজ আন্তর্জাতিক যোগ দিবস উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী পাঞ্জাব এবং হরিয়ানার রাজধানী চণ্ডীগড়ে তিরিশ হাজার মানুষের জমায়েতে যোগাভ্যাস করেন। পাঞ্জাবের শিরোমণি অাকালি দলের সঙ্গে বিজেপি’র জোট রয়েছে। কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারে অকালি দলের মন্ত্রীও রয়েছেন।

সিসোদিয়া বলেন, ‘যোগ ব্যায়াম করা এবং যোগের কথা বলা ভাল। কিন্তু একদিকে যোগ ব্যায়াম, অন্যদিকে, বিভক্ত করার রাজনীতি! এই দ্বিচারিতা ছাড়ুন। এ ধরণের যোগ ব্যায়াম প্রদর্শনী হিসেবেই গণ্য হবে।’ আজ কেন্দ্রীয় বিজেপি সরকারের পক্ষ থেকে দেশজুড়ে ধূমধাম করে আম্তর্জাতিক যোগ দিবসের আয়োজন করা হয়।

You Might Also Like