জঙ্গি দমনের নামে গণগ্রেফতার উদ্দেশ্যমূলক: জামায়াত

সারাদেশে গত কয়েক দিন যাবত জঙ্গি ধরার নামে গণগ্রেফতার অভিযান চালিয়ে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরসহ বিরোধী দলের নেতা-কর্মীদের গণহারে গ্রেফতার করার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর ভারপ্রাপ্ত সেক্রেটারী জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান আজ বুধবার বিবৃতি দিয়েছেন।

প্রদত্ত বিবৃতিতে তিনি বলেন, “সরকার জঙ্গি ধরার নামে সারাদেশে গণগ্রেফতার অভিযান চালিয়ে গত ৫ দিনে জামায়াতে ইসলামী এবং ইসলামী ছাত্রশিবির ও বিরোধী দলের নেতা-কর্মীসহ প্রায় সাড়ে ১৪ হাজার মানুষকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করার ঘটনা সম্পূর্ণ অমানবিক ও বেআইনী।

সরকার জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরসহ বিরোধী দলের নেতা-কর্মী এবং সাধারণ মানুষকে অন্যায়ভাবে গ্রেফতার করে দেশের কারাগারগুলো ভরে ফেলেছে। সরকার বিশেষভাবে জামায়াত ও ছাত্রশিবিরের নেতা-কর্মীদেরকে টার্গেট করে গ্রেফতার করছে। সরকারের আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী বলছে যে, গ্রেফতারকৃত সাড়ে ১৪ হাজার লোকের মধ্যে তারা ১১৯ জন তথাকথিত জঙ্গিকে গ্রেফতার করেছে। তথাকথিত ১১৯ জন জঙ্গিকে যদি তারা সনাক্ত করতে সক্ষম হয়ে থাকে তাহলে বাকী লোকদের তারা গ্রেফতার করে জেলে পাঠাচ্ছে কোন্ যুক্তিতে বা কোন আইনে।

সরকারের গণগ্রেফতার অভিযানের কারণে মানুষের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ বিরাজ করছে। সরকারের এ স্বৈরাচারী কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সোচ্চার হওয়ার জন্য আমি দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি। রমজানের পবিত্রতার প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করে অবিলম্বে জামায়াতে ইসলামী ও ইসলামী ছাত্রশিবিরের নেতা-কর্মীসহ সকল নিরপরাধ লোকদের নিঃশর্তভাবে মুক্তি প্রদান করার জন্য আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।”

You Might Also Like