ভারতের বিমানবাহী রণতরীতে বিষাক্ত গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে ২ জনের মৃত্যু

এখন সময় ডেস্কঃ ভারতের বিমানবাহী রণতরী আইএনএস বিক্রমাদিত্যতে আজ(শুক্রবার) বিষাক্ত গ্যাস ছড়িয়ে পড়ে দুই জন মর্মান্তিক ভাবে প্রাণ হারিয়েছেন। নিহতদের মধ্যে একজন বেসরকারি কর্মীও রয়েছেন। বর্তমানে কর্ণাটক রাজ্যের কারওয়ার নৌঘাটিতে ভারতের সবচেয়ে বড় এই ৪৫ হাজার টনের এ রণতরীর মেরামতের কাজ চলছে।

স্থানীয় সময় বিকার ৫টায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। পয়: নিষ্কাশনের জন্য ব্যবহৃত একটি পাইপ মেরামতের সময়ে বিষাক্ত হাইড্রোজেন সালফাইড গ্যাস ছড়িয়ে পড়লে চার ব্যক্তি জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। ২০তলা ভবনের সমান উঁচু বিমানবাহী রণতরীর সবচেয়ে নিচের স্তরে এ মেরামতের কাজ চলছিল। এর মধ্যে দু’জন প্রাণ হারালেও বাকি দু’জন স্থিতিশীল অবস্থায় রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

গত চার বছরে ভারতীয় নৌবাহিনী ধারাবাহিক বেশ বড় সড় কিছু দুর্ঘটনায় পড়েছে। ২০১৪ সালে ভারতীয় নৌবাহিনীর রণতরী আইএনএস কুঠার আন্দামান এবং নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে টহল অভিযান শেষে ফেরার পথে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ২০১৩ সালে ভারতের স্বাধীনতা দিবসের আগের দিন অর্থাৎ ১৪ আগস্টে নৌ বাহিনীর রুশ নির্মিত ডুবোজাহাজ আইএনএস সিন্ধুরক্ষক ডুবে ১৮ জনের মৃত্যুর মর্মান্তিক ঘটনার ঘটেছে।

এরপর অন্তত ১৫ দফা দুর্ঘটনায় পড়ল দেশটির নৌ বাহিনী। এ সব দুর্ঘটনার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো, বিমানবাহী জাহাজ আইএনএস বিরাটে সেপ্টেম্বরের ২২ তারিখে অগ্নিকাণ্ড, ডিসেম্বরে ৪ তারিখে আইএনএস কনকানে অগ্নিকাণ্ড এবং মাছধরার ট্রলারের সঙ্গে আইএনএস তলোয়ারের সংঘর্ষ।

এদিকে, ২০১৪ সালে ২৬ ফেব্রুয়ারি ডুবোজাহাজ আইএনএস সিন্ধুরত্নে বিস্ফোরণ ঘটার পর দায় স্বীকার করে পদত্যাগ করেন ভারতীয় নৌবাহিনীর তৎকালীন প্রধান অ্যাডমিরাল ডি কে জোশী।

You Might Also Like