বৈঠক করলেন ইরান, রাশিয়া ও সিরিয়া প্রতিরক্ষামন্ত্রী

এখন সময় ডেস্কঃ ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের রাজধানী তেহরানে রাশিয়া, সিরিয়া ও ইরানি প্রতিরক্ষামন্ত্রীর মধ্যে ত্রিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে যোগ দেন রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী লেফটেন্যান্ট জেনারেল সের্গেই শোইগু, সিরিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী মেজর জেনারেল ফাহাদ জাসেম আল-ফ্রেইজি এবং ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল হোসেইন দেহকান।

বৈঠকে ইরানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেছেন, সিরিয়ায় যুদ্ধবিরতির সুযোগে উগ্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলোকে শক্তিশালী হয়ে ওঠার সুযোগ দেয়া ঠিক হবে না। তিনি সিরিয়ায় সহিংসতার লাগাম টেনে ধরতে ‘সমন্বিত’ যুদ্ধবিরতি চুক্তির আহ্বান জানান।

বৈঠকে জেনারেল দেহকান বলেন, সিরিয়ার চলমান যুদ্ধবিরতিকে ইরান অনুমোদন দিয়েছে শুধু সেখানকার নিরাপত্তা নিশ্চিত হবে বলে; কোনোভাবেই সন্ত্রাসীদের শক্তি অর্জনের জন্য নয়। তিনি সিরিয়ার সব সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে জোরালো লড়াইয়ের আহ্বান জানান। পাশাপাশি সন্ত্রাসীদের জন্য বিদেশি সহায়তা আসা বন্ধ করার জন্য কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার কথা বলেন তিনি। দেহকান বলেন, সিরিয়ায় লড়াই করতে হবে এবং দেশটির জনগণকে রাজনৈতিক উপায়ে নিজেদের ভাগ্য ঠিক করার জন্য কূটনৈতিক প্রচেষ্টাও চালাতে হবে।

ইরানের মন্ত্রী কথিত ‘মধ্যপন্থি বিরোধীদল’-এর নামে সন্ত্রাসীদেরকে সমর্থন দেয়ার জন্য আমেরিকা, সৌদি আরব ও আঞ্চলিক কয়েকটি দেশের বিরুদ্ধে তীব্র নিন্দা জানান। তিনি বলেন, সন্ত্রাসবাদ দমনে মিথ্যা চেষ্টার মাধ্যমে সাম্রাজ্যবাদী শক্তির মুখোশ উন্মোচিত হয়েছে।

সৌদি আরব এবং ইহুদিবাদী ইসরাইলের মধ্যকার বন্ধুত্ব সন্ত্রাসবাদ বিস্তারে উৎসাহ দিচ্ছে বলেও কঠোর ভাষায় রিয়াদ ও তেল আবিবের সমালোচনা করেন। তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, মুসলিম উম্মাহ ও পুরো মানবতার শত্রু ইহুদিবাদী ইসরাইলের হাতের পুতুল হিসেবে সৌদি সরকার বিপজ্জনক খেলায় মেতে উঠেছে।

বৈঠকে সিরিয়া এবং রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রীও সন্ত্রাসবাদ-বিরোধী লড়াই জোরদার করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন। এছাড়া, এ ধরনের বৈঠক আয়োজনের জন্য তারা ইরানি প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে ধন্যবাদ দেন।

You Might Also Like