‘রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধের জন্য সক্রিয় চেষ্টা চালাচ্ছে ন্যাটো’

আমেরিকা ও তার মিত্র ন্যাটো জোট সামরিক দিক দিয়ে দুর্বল অবস্থানে থাকার পরও রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ বাধানোর জন্য সক্রিয়ভাবে চেষ্টা করছে।

লন্ডনের রাজনৈতিক বিশ্লেষক রডনি শেক্সপিয়ার ইরানের প্রেস টিভিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ মন্তব্য করেছেন। বাল্টিক সাগর অঞ্চলের দেশগুলোতে ন্যাটোর অবস্থান শক্তিশালী করার জন্য ব্রিটেন সেনা ও ভারী অস্ত্র পাঠানোর পরকিল্পনা করছে বলে প্রকাশিত খবর সম্পর্কে আলোচনা করতে গিয়ে রডনি এ মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ন্যাটো যে কারণে আগ্রাসন চালাতে চাইছে তা হলো- বৈশ্বিক অর্থনৈতিক ব্যবস্থায় বর্তমানে অস্থিরতা চলছে এমনকি তা বিপর্যস্ত অবস্থার মধ্যে পড়তে পারে। এ অবস্থায় ন্যাটোর প্রধান দেশগুলো যুদ্ধ বাধিয়ে অন্য কোনো দেশের ওপর দায় চাপিয়ে দিতে চায়। তবে এ ক্ষেত্রে ন্যাটো জোট রাশিয়ার শক্তিকে খাটো করে দেখছে যা নিতান্তই ভুল। ফলে রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধের বিষয়ে বড় ধরনের ঝুঁকি নিচ্ছে আমেরিকা ও ন্যাটো জোট। রডনি প্রশ্ন তোলেন, রাশিয়ার সীমান্তে যেমন সেনা মোতায়েন করেছে ন্যাটো; তেমনি রাশিয়া যদি আমেরিকা কিংবা ইউরোপের কোনো দেশের সীমান্তে সেনা মোতায়েন করত তাহলে তারা কী কেউ সহ্য করত?

রাশিয়ার বিরুদ্ধে আগ্রাসনের ক্ষেত্রে ইউক্রেন একটি গুরুত্বপূর্ণ ইস্যু হয়ে উঠতে পারে বলে মন্তব্য করেন রডনি। তিনি বলেন, কয়েক বছরের এ সংঘাত মারাত্মক অবস্থা তৈরি করেছে। ২০১৪ সালের পর থেকে এ পর্যন্ত ইউক্রেন সংঘাতে নয় হাজারের বেশি লোক নিহত ও অন্তত ২০ হাজার আহত হয়েছে। এর মধ্যে ইউক্রেনের বহু সেনা রয়েছে। ইউক্রেন ইস্যুকে কেন্দ্র করে আমেরিকা ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে। -পার্সটুডে

You Might Also Like