হজ করতে সৌদি আরবে লোক পাঠাবে না ইরান

ইরান এবছর হজ করার জন্য তাদের নাগরিকদের সৌদি আরব পাঠাবে না।
ইরানের সংস্কৃতি মন্ত্রী আলী জান্নাতি অভিযোগ করেছেন, সৌদি আরব নানাভাবে বাধা তৈরি করছে বলে এই সিদ্ধান্ত।
সিরিয়া এবং ইয়েমেনের যুদ্ধে সুন্নি সৌদি আরব এবং শিয়া ইরান পুরোপুরি বিপরীত অবস্থানে।
আর জানুয়ারিতে সৌদি আরবে এক শিয়া নেতাকে ফাঁসি দেওয়ার পর দু’দেশের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন রয়েছে।
গত বছর হজের সময় ভিড়ে চাপা পড়ে যে মর্মান্তিক প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছিল ইরানের এই সিদ্ধান্তের ওপর তারই ছায়া পড়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।
হজযাত্রীদের হুড়োহুড়িতে নিহতের সংখ্যা নিয়ে মতপার্থক্য আছে। বিভিন্ন সূত্রে নিহতের সংখ্যা সাত শতাধিক থেকে দু’হাজার পর্যন্ত বলা হয়।
নিহতদের মধ্যে অনেকেই ছিলেন ইরানি।
সৌদি আরবে পালিত হচ্ছে হজ
ইরানের সংস্কৃতি মন্ত্রী আলী জান্নাতি বলেছেন, সৌদি আরব হজের ব্যাপারে যেসব প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে তাতে ইরানিদের এ বছর হজ করতে যাওয়া অসম্ভব হয়ে পড়েছে।
তার কথা, ইরান এই সমস্যাগুলো নিষ্পত্তির জন্য সৌদি আরবকে রোববার পর্যন্ত সময় দিয়েছিল। কিন্তু তারা তা করতে ব্যর্থ হয়েছে।
সৌদি আরবের দিক থেকে এ ব্যাপারে কোন প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি।
এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী এই দুটি দেশের মধ্যে উত্তেজনাপূর্ণ সম্পর্কেরও আরো অবনতি হয়েছে।
ইরান ও সৌদি আরব এখন সিরিয়া ও ইয়েমেনে পরস্পরবিরোধী গোষ্ঠীগুলোকে সমর্থন দিচ্ছে।
সৌদি আরবে এ বছরই একজন নেতৃস্থানীয় শিয়া নেতার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করার পর তেহরানে সহিংস প্রতিক্রিয়া হয়, এবং ক্রুদ্ধ জনতা সৌদি দূতাবাস আক্রমণ করায় দু’দেশের সম্পর্ক আরো খারাপ হয়।সূত্র-বিবিসি বাংলা।

You Might Also Like