তনু হত্যা: দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত বোর্ডের প্রধানকে হত্যার হুমকি

সোহাগী জাহান তনু হত্যার দ্বিতীয় ময়নাতদন্ত বোর্ডের প্রধান ও কুমেকের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. কামাদা প্রসাদ সাহাকে (কেপি সাহা) প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার দুপুর পৌনে ২টার দিকে ডা. কামদা প্রসাদ সাহা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার কার্যালয়ে সাংবাদিকদের কাছে এ হুমকিমূলক চিঠির কথা জানান।

চিঠিতে বলা হয়েছে, ‘আপনি তনু হত্যা মামলা নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছেন, যা আপনার জন্য ভয়াবহ হয়ে দাঁড়াচ্ছে। সহজ মামলাটিকে প্যাঁচিয়ে জটিল করার চেষ্টা করবেন না, আপনি কি চান আপনার পরিবার ও ছেলে মেয়ে ধ্বংস হয়ে যাক?’

চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়েছে ‘তনুর মা তার বক্তব্যে বলেছেন সার্জেন্ট জাহিদ ও সিপাহী জাহিদ তনুকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে গেছে। সরকারের আজ্ঞাবহ হয়ে কাজ করবেন না। সেনাবাহিনীর সদস্যদেরকে এই মামলায় জড়ানো হলে শেখ হাসিনার সিংহাসন নড়বড়ে হয়ে যাবে, তাই না?

ডা. কেপি সাহা জানান, মঙ্গলবার সকালে তিনি অফিসে আসার পর ডাকযোগে প্রেরিত হাতে লেখা ২ পৃষ্ঠার এ চিঠিটি পান। হুমকির বিষয়ে আজ বিকেলের মধ্যেই তিনি জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে কোতয়ালী মডেল থানায় জিডি করবেন বলে জানিয়েছেন।

হুমকির প্রতিক্রিয়ায় ডা. কামদা প্রসাদ সাহা জানান, হুমকিতে যে কোনো মানুষই বিচলিত হয়, আমিও তো মানুষ। আমি নিয়মের মধ্যে আছি, তবে আমি ভীত নই।

এদিকে মঙ্গলবার সকালে মেডিকেল বোর্ড ২য় ময়নাতদন্তের বিষয়ে সভা করেছেন বলে জানিয়েছেন ডা. কামদা প্রসাদ সাহা।

তিনি জানান, মেডিকেল কলেজ প্রিন্সিপাল ও আইনজীবীদের সঙ্গে পরামর্শ করে ডিএনএ রিপোর্ট এর জন্য আদালতে আবেদন জানানো হবে। ডিএনএ রিপোর্ট পাওয়া সাপেক্ষে ২য় ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন দেয়া হবে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির পরিদর্শক গাজী মো. ইব্রাহিম বলেন, ডা. কামদা প্রসাদ সাহাকে হুমকি দেয়ার বিষয়ে আমি কিছু জানি না, আমাকে কেউ কিছু জানায়নি।

You Might Also Like