টাইম টিভি’র ‘বিজ টক’ অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মান্নান

বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, জ্যাকসন হাইটস বাংলাদেশ বিজনেস এসোসিয়েশন  (জেবিবিএ)-এর সাবেক সভাপতি সৈয়দ রহমান মান্নান বলেছেন, পরিশ্রম, সততা আর সঠিক পরিকল্পনাই ব্যবসায় সাফল্যের মূল চাবিকাঠি। তিনি বলেন, কমিউনিটি বাড়ছে, বাড়ছে ব্যবসা। কিন্তু ব্যবসায় সবাই লাভবান হতে পারছেন না। কেননা, ব্যবসা কেন্দ্রীয় এলাকায় বড় সমস্যা স্টোর ভাড়া। এজন্য নতুন ব্যবসায়ে আগ্রহীদের আগে-পিছে ভেবে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে ব্যবসায় পূঁজি নিয়োগ করতে হবে। তিনি বলেন, একাধিক পার্টনারের চেয়ে একক পার্টনারের ব্যবসায় ঝুঁকি কম।
নিউইয়র্কে বাংলাদেশী কমিউনিটির অতি পরিচিত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মান্নান গ্রোসারী ও হালাল মিট, মান্নান বেকারী ও মান্নান সুপার মার্কেটের স্বত্তাধিকারী সৈয়দ মান্নান রহমান গত শুক্রবার সন্ধ্যায় টাইম টিভি’র সাক্ষাৎকার ভিত্তিক ‘বিজ টক’ অনুষ্ঠানে উপরোক্ত কথা বলেন। সাক্ষাৎকারটি গ্রহণ করেন টাইম টিভি’র নিউজ এন্ড কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স বিভাগের অ্যাডভাইজর, বিশিষ্ট সাংবাদিক ফরিদ আলম। আধ ঘন্টার অনুষ্ঠানটি ঐদিন সন্ধ্যা ৭টায় টাইম টিভি সরাসরি সম্প্রচার করে।
‘বিজ টক’ অনুষ্ঠানে নিউইয়র্কের সফল বাংলাদেশী ব্যবসায়ী সৈয়দ রহমান মান্নান বলেন, আমি সততার সাথে পরিশ্রম করে আজকের পর্যায়ে এসেছি। প্রথমে জ্যাকসহাইটসে মান্নান গ্রোসারী চালুর পর, মান্নান ডিসকাইন্ট ও মান্নান বেকারী স্টোর করার পর জ্যামাইকায় মান্নান সুপার মার্কেট প্রতিষ্ঠা করি। পরবর্তীতে লং আইল্যান্ডে সুপার মার্কেট প্রতিষ্ঠা করেও তা বন্ধ করে দেই। এরপর ব্রঙ্কসে নতুন করে একটি সুপার মার্কেট চালু করেছি। এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আগে ব্যবসা শুরু করা যত সহজ ছিলো এখন তত সুবিধা নেই। স্টোর ভাড়া অনেক বেশী। তিনি বলেন আমার জ্যাকসন হাইটস স্টোরের ভাড়া ছিলো ১,৭০০ ডলার এখন সেই ভাড়া ২৭ হাজার ডলার। তাছাড়া ব্যবসায় ইনভেস্টও বেশী।
অপর এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, বাংলাদেশের ফ্রেশ (তাজা) শাক-শবজি এদেশে আনা নিষিদ্ধ, তবে ফ্রোজেন অনেক কিছুই পাওয়া যাচ্ছে। তবে আমরা যে তাজা সবজি পাচ্ছি তা এখানেই উৎপাদন হচ্ছে। এছাড়া সকল প্রকার মাছ বাংলাদেশ, পাকিস্তান, বার্মা, থাইল্যান্ড থেকে আসছে। তিনি বলেন, আগে মাছ নিয়ে অনেক অভিযোগ থাকলেও এখন তেমন অভিযোগ নেই। ব্যবসায়ীরা এখন কোয়ালিটি মেইনটেন করার চেষ্টা করছেন।
অপর এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আমাদের নবী হযরত মোহাম্মদ (সা:) নিজেও ব্যবসা করতেন। আমি লক্ষ্য করেছি আগে আমার স্টোরে হালাল খাবার না থাকায় আমার সন্তানও আমার স্টোরে ঢুকতো না। আমাদের নতুন প্রজন্মের কথা ভেবেই হালাল ব্যবসায় মনোযোগী হয়েছি। হালাল খাবারের জন্য হালাল দ্রব্য-সামগ্রীর মুল্যও কিছুটা বেশী। তিনি বলেন, হালাল খাবারের ব্যাপারে এখানকার ইন্সপেক্টররা সকর্ত দৃষ্টি রাখেন।
তিনি বলেন, ব্যবসায় আমি কাউকেই প্রতিদ্বন্দ্বি ভাবী না। আমি আমার মতো চলতে চাই। কোন ব্যবসায়ীদের সাথে প্রতিযোগিতায় আমি থাকি না। প্রয়োজনে অন্য পথে চলি। তিনি বলেন, নতুন ব্যবসায়ীদের সাধ্যমত ভালো পরামর্শ দেয়ার চেষ্টা করি।
সৈয়দ মান্নান রহমান বলেন, কোন এলাকায় কোন ব্যবসার চাহিদা সেটা ভেবেই ভালো ব্যাকাপ (পূঁজি) নিয়ে ব্যবসায় নামতে হবে। তিনি বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশীদের সংখ্যা বৃদ্ধির পাশাপাশি ব্যবসায়ীর সংখ্যাও বাড়ছে। বলতে গেলে এখন আমরা সকল পর্যায়েই পরিপূর্ণ। তিনি বলেন, আমাদের ব্যবসায়ী আছেন, ডাক্তার, এটনী, সিপিএ সবকিছুই আমাদের রয়েছেন।
এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, জ্যাকসন হাইটস-এর ব্যবসা হচ্ছে মূলত: ‘ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস’। কেননা, এই এলাকায় বাংলাদেশী ছাড়াও ইন্ডিয়া, পাকিস্তানসহ বিভিন্ন দেশের প্রবাসীদের বসবাস। ফলে ব্যবসার জন্য জ্যাকসন হাইটস হচ্ছে রিস্কি জায়গা। তাই নতুন ব্যবসায়ীদের নতুন নতুন জায়গা খুঁজে বের করতে হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে চাল না আসার কোন কারণ নেই। কালিজিরা চালের খুব চাহিদা। বাংলাদেশ সরকারের উচিৎ হবে এই চাল রপ্তানী অব্যাহত রাখা।
বাংলাদেশী পণ্য যুক্তরাষ্ট্রে রাপ্তানীতে বাধা বা নিষিদ্ধের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসনের বাধা-নিষেধ এক দিক দিয়ে ভালো। কেননা, তাতে কোয়ালিটি মেনটেন করা সম্ভব হচ্ছে। তিনি বলেন, নিজের দেশের পণ্য হিসেবে প্রবাসীদের চাহিদাও বেশী।
ভবিষ্যত পরিকল্পনা সম্পর্কে সৈয়দ রহমান মান্নান বলেন, আপাতত নতুন কিছু করার পরিকল্পনা নেই। ভবিষ্যতই বলে দেবে কি করতে পারবো। তিনি বলেন, সবাই মিলেমিশে, একে অপরের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হয়ে চলতে পারি তবে আমরা আরো এগিয়ে যাবো। আমাদের নিজেদের মধ্যে হিংসা-বিদ্ধেষ থাকা উচিৎ নয়।

You Might Also Like