নীলফামারীতে হত্যার অভিযোগে তিন ভাইয়ের যাবজ্জীবন

নীলফামারীতে হত্যার অভিযোগে তিন চাচাতো ভাইয়ের যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছে আদালত। অনাদায়ে আরো ছয় মাস করে সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। একই মামলায় অপর পাঁচ ৫ আসামীদের প্রত্যেককে এক বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড এক হাজার টাকা করে জরিমানা করেছে আদালত। অনাদায়ে এক মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে নীলফামারীর অতিরিক্ত দায়রা জজ মাববুবুল আলম ওই রায় প্রদান করেন। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, জেলার সৈয়দপুর উপজেলা দিকশো মোল্লাপাড়া গ্রামের মাজাহারুল ইসলামের ছেলে মোখছেদুল ইসলাম (৩৫), তার ছোটভাই মোস্তাকিন (৩৩) ও তাদের চাচা আসান উদ্দীনের ছেলে এমদাদুল হক (৫৩)। এক বছরের সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত মোখছেদুলের বাবা মোজাহারুল ইসলাম (৬৮), মোখছেদুলের মা নেছাবী বেগম (৬০), মোখছেদুলের স্ত্রী অবিতন (৩১), সাজাপ্রাপ্ত ছোটভাই মোস্তাকিনের স্ত্রী লিপি (৩০), অপর ছোটভাই মহসীন আলীর স্ত্রী নমনী (২৫)। যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্তদের মধ্যে মোস্তাকিন ও এক বছরের সাজাপ্রাপ্ত মোস্তাকিনের স্ত্রী লিপি এবং মোখছেদুলের স্ত্রী অবিতন পলাতক রয়েছে।

মামলার বিবরনে জানা যায়, ২০০৮ সালে ১৫ সেপ্টেম্বর নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার ডিকশো মোল্লাপাড়া গ্রামে চাচাতো ভাইয়েরা চাচা আইউব আলীর ছেলে বদিউজ্জামানের সাথে ঠাট্টা করার সময় খড়ি দিয়ে মারপিট এবং এক পর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এতে বদিউজ্জামানকে গুরুত্বর আহতবস্থায় হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়। এ ঘটনায় নিহত বদিউজ্জামানের ছোটভাই সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে পরদিন ১৬ সেপ্টেম্বর(২০০৮) আট জনকে আসামী করে সৈয়দপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে দীর্ঘ তদন্ত শেষে সাজাপ্রাপ্তদের বিরুদ্ধে পুলিশ চার্জশীট প্রদান করলে ওই মামলায় দীর্ঘ শুনানী শেষে আদালত ওই আদেশ দেন।

You Might Also Like