উ. কোরিয়ায় হামলার মহড়া চালাবে সিউল-ওয়াশিংটন

আমেরিকা এবং দক্ষিণ কোরিয়া যৌথভাবে উত্তর কোরিয়ায় আগাম হামলার সামরিক মহড়া চালাবে। এতে দক্ষিণ কোরিয়ার ৯০ হাজার এবং ১৫ হাজার মার্কিন সেনা অংশ নেবে। মহড়ায় উত্তর কোরিয়ার ভূগর্ভস্থ কল্পিত অস্ত্র গুদামগুলোতে সামরিক হামলা চালানো হবে।

‘কি রিজলভ’ বা ‘ফোল ঈগল’ নামের এ মহড়া আগামী মাসের ৭ তারিখে শুরু হয়ে এপ্রিলের শেষ পর্যন্ত চলবে। ২০০৮ সাল থেকে আমেরিকা এবং দক্ষিণ কোরিয়া প্রতিবছর বার্ষিক এ মহড়া চালিয়ে আসছে। অবশ্য গত বছর মহড়ায় দুই দেশের যে পরিমাণ সেনা অংশ নিয়েছিল এবার তার চেয়ে চার গুণ বেশি সেনা অংশ নেবে।

এবারের মহড়ায় উত্তর কোরিয়ার সীমান্ত পেরিয়ে দেশটির গভীরে ঢুকে অস্ত্র গুদামগুলোতে হামলা চালানোর অনুশীলন করা হবে। একই সঙ্গে চীন ও রাশিয়ার সীমান্তে বিশেষ বাহিনী মোতায়েন করার বিষয়টি এ মহড়ার অংশ হিসেবে থাকবে। উত্তর কোরিয়ার মিত্র দেশ চীন ও রাশিয়া এবং পিয়ংইয়ংয়ের সঙ্গে যুদ্ধ শুরু হলে তা যেন ছড়িয়ে পড়তে না পারে সে জন্য এ দুই দেশের সীমান্ত বন্ধ করে দিতে হবে বলে মার্কিনীরা মনে করে।

উত্তর কোরিয়া পরমাণু বোমা এবং ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালানোর প্রেক্ষাপটে এবারের যৌথ মহড়া শুরু হতে যাচ্ছে। উত্তর কোরিয়ার অস্ত্র ভাণ্ডারে এক হাজারের বেশি ক্ষেপণাস্ত্র আছে বলে মার্কিন থিংক ট্যাংক ও কর্মকর্তারা মনে করেন। তবে, উত্তর কোরিয়ার হাতে পরমাণু বোমা বহনে সক্ষম ক্ষেপণাস্ত্র নেই।

You Might Also Like