‘ভুলক্রমে’ পাঠানো ক্ষেপণাস্ত্র আমেরিকাকে ফেরত পাঠিয়েছে কিউবা

হাভানায় ২০১৪ সালের জুন মাসে ভুলক্রমে পাঠানো একটি হেলফায়ার ক্ষেপণাস্ত্র আমেরিকাকে ফেরত পাঠিয়েছে কিউবা।
ক্ষেপণাস্ত্রটিতে অবশ্য কোন বিস্ফোরক যুক্ত ছিল না এবং এটিকে স্পেনে একটি নেটো প্রশিক্ষণের জন্য পাঠানো হয়েছিল।
এ উদ্দেশ্যে এটিকে জার্মানি হয়ে ফ্রান্সের শার্ল দ্য গল বিমানবন্দরে নেয়া হয়েছিল।
কিন্তু ওই বিমানবন্দর থেকেই ক্ষেপণাস্ত্রটিকে ভুলক্রমে হাভানাগামী এয়ার ফ্রান্সের একটি বিমানে তুলে দেয়া হয়েছিল।
ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে এই খবর প্রকাশিত হয় এবং কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, এই ভুলটি একটি সম্ভাব্য মারাত্মক সামরিক ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল।
সূত্রের বরাত দিয়ে পত্রিকাটি আরো বলছে, আমেরিকার কর্মকর্তাদের আশঙ্কা ছিল, কিউবা হয়তো ওই ক্ষেপণাস্ত্রটিতে ব্যবহার করা আধুনিক প্রযুক্তি উত্তর কোরিয়া, চীন কিংবা রাশিয়ার মতো দেশকে জানিয়ে দেবে।
পুরো ব্যাপারটিতে বিব্রত হয়ে আমেরিকা কিউবাকে অনুরোধ জানিয়েছিল ক্ষেপণাস্ত্রটি ফেরত দিতে।
কিউবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এখন বলা হচ্ছে, “প্যারিস থেকে আসা একটি বিমানে করে ক্ষেপণাস্ত্রটি ‘ভুলবশত’ তাদের দেশে আসে। ব্যাপারটাকে গুরুত্বের সাথে নিয়ে একটি সন্তোষজনক সমাধানের জন্য কিউবা স্বচ্ছতার সাথে সহযোগিতা করেছে”।
এককালে শত্রুভাবাপন্ন দুই দেশ কিউবা এবং আমেরিকা সম্প্রতি নিজেদের মধ্যে সম্পর্কোন্নয়ণের কাজ করছে। -বিবিসি

You Might Also Like