ইসলামাবাদে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে তলব

বাংলাদেশের প্রতি ‘বৈরিতার নীতি’ থেকে হটছে না পাকিস্তান। সুনির্দিষ্ট কারণে ঢাকায় পাকিস্তানের হাইকমিশনার সুজা আলমকে তলবের জের ধরে আজ সোমবার ইসলামাবাদে বাংলাদেশের হাইকমিশানর সোহরাব হোসেনকে তলব করেছে পাকিস্তান।
ইসলামাবাদের একটি কূটনৈতিক সূত্র আজ জানায়, সোমবার বিকেলে সোহরাব হোসেনকে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করা হয়। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক অতিরিক্ত পররাষ্ট্রসচিব বাংলাদেশের হাইকমিশনারকে তাঁর দপ্তরে তলব করেন। এ সময় দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দক্ষিণ এশিয়া বিভাগের মহাপরিচালক মোহাম্মদ ফয়সল উপস্থিত ছিলেন। তবে বাংলাদেশের হাইকমিশনারকে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে কি বার্তা দেওয়া হয়েছে সে সম্পর্কে সূত্র কিছু জানাতে পারেনি।
এ বিষয়ে জানতে বাংলাদেশের হাইকমিশনারের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায়নি।
ঢাকা ও ইসলামাবাদের কূটনৈতিক সূত্রগুলো আভাষ দিয়েছেন ছয় দিন আগে গত ২ ফেব্র“য়ারি ঢাকায় সুজা আলমকে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলবের পাল্টা হিসেবে সোহরাব হোসেনকে পাকিস্তান তলব করলো। কারণ জঙ্গি অর্থায়নে জড়িত থাকার অভিযোগে গত বছরের ২৩ ডিসেম্বর ঢাকা থেকে পাকিস্তানি কূটনীতিক ফারিনা আরশাদকে ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হয় ইসলামাবাদ। এর পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে কোন কারণ ছাড়াই বাংলাদেশের কূটনীতিক মৌসুমী রহমানকে ইসলামাবাদ থেকে প্রত্যাহার করতে বলে পাকিস্তান। এছাড়া গত ১ ফেব্র“য়ারি সন্দেহজনক গতিবিধির কারণ ঢাকায় পাকিস্তান হাইকমিশনের কর্মী আবরার আহমেদ খানকে কয়েক ঘন্টার জন্য আটক করে গোয়েন্দা সংস্থা। তাকে ছেড়ে দেওয়ার পর ইসলামাবাদে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে বাংলাদেশ হাইকমিশনের কর্মী জাহাঙ্গীর হোসেনকে সাদা পোশাকে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা আটক করে ও পরে ছেড়ে দেয়।

You Might Also Like