একটি পরিবারে কয়টি গাড়ি, নির্দিষ্ট করে আইন আসছে

পরিবার প্রতি গাড়ি সংখ্যার ঊর্ধ্বসীমা নির্ধারণ করে দিয়ে ‘সড়ক পরিবহন আইন’ করতে যাচ্ছে সরকার। সোমবার সংসদে এক প্রশ্নের উত্তরে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মোটর ভেহিকেল অর্ডিন্যান্স-১৯৮৩ এর পরিবর্তে দুটি ভিন্ন আইন প্রণয়নের প্রক্রিয়ার কথা জানান।
সংসদ সদস্য হাজি সেলিম মন্ত্রীর কাছে প্রশ্ন রেখেছিলেন, একটি পরিবারে একটির বেশি গাড়ি ব্যবহার করা যাবে না মর্মে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হবে কি না?
রাজধানীর যানজটের জন্য ব্যক্তিগত গাড়িকেই প্রধানত দায়ী করা হয়। অনেকেই বলেন, ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করা গেলে যানজট সহনীয় হয়ে আসবে। হাজি সেলিমের প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, “একটি পরিবারে একটির বেশি গাড়ি ব্যবহার করা যাবে না মর্মে নিষেধাজ্ঞা জারির বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়নি।
“তবে খসড়া সড়ক পরিবহন আইনে পরিবার প্রতি গাড়ির সংখ্যার ঊর্ধ্বসীমা নির্ধারণের প্রস্তাব রাখা হয়েছে।”
মোটর ভেহিকেল অর্ডিন্যান্সের পরিবর্তে ‘বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ আইন’ ও ‘সড়ক পরিবহন আইন প্রণয়নের কাজ চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে বলে জানান মন্ত্রী। সড়কে দুর্ঘটনার জন্য চালকদের দায়ী করেন ওবায়দুল কাদের। এজন্য তাদের প্রশিক্ষণের উপর জোর দেন তিনি।
“ড্রাইভারদের ট্রেনিং দরকার। স্টিয়ারিং ধরেই গাড়ি চালাতে চায়। নিয়ম-শৃঙ্খলা মানতে চায় না। ফ্রি স্টাইলে চলতে চায়। এ ব্যাপারে মালিক-শ্রমিকদের নিয়ে বৈঠক করেছি। আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি।” সড়ক চার লেইন হলেই দুর্ঘটনা কমবে না বলে মনে করেন মন্ত্রী। তার মতে, এজন্য চালকদের সচেতনতা বেশি প্রয়োজন।
ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক চার লেইনে উন্নীত করার চূড়ান্ত কাজ চলছে জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী মে মাস নাগাদ প্রধানমন্ত্রী তা উদ্বোধন করতে পারবেন বলে আশা করা হচ্ছে। মন্ত্রী জানান, সড়কও জনপথ অধিদপ্তরের আওতায় সারাদেশে ২১ হাজার ৩০২ কিলোমিটার মহাসড়ক রয়েছে। এর মধ্যে জাতীয় মহাসড়ক ৩ হাজার ৮১২ কিলোমিটার, আঞ্চলিক মহাসড়ক ৪ হাজার ২৪৬ কিলোমিটার।

You Might Also Like