সোনালী ব্যাংকের জিএম ননীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

নির্ধারিত সময়ে সম্পদের হিসাব না দেয়ায় সাময়িক বরখাস্ত হওয়া সোনালী ব্যাংক প্রধান কার্যালয়ের মহা-ব্যবস্থাপক (জিএম) ননী গোপাল নাথের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আজ রোববার সকালে রাজধানীর রমনা মডেল থানায় মামলাটি দায়ের করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

ননী গোপাল নাথ হলমার্ক কেলেঙ্কারিতে দায়ের করা মামলার চার্জশিটভুক্ত অন্যতম আসামি। ঋণ জালিয়াতির অভিযোগে তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

অভিযোগের বিষয়ে দুদক সূত্রে জানা যায়, ২০১২ সালে হলমার্ক কেলেঙ্কারি অনুসন্ধান শুরুর সময় সোনালী ব্যাংকের তৎকালীন জিএম ননী গোপাল নাথের বিরুদ্ধে সম্পদের অনুসন্ধান শুরু করে কমিশন।

প্রাথমিক অনুসন্ধানে জ্ঞাত আয় বহির্ভুত সম্পদের প্রমাণ পাওয়ায় ২০১৩ সালের ১ এপ্রিল তাকে সম্পদ বিবরণী দাখিলের নোটিশ করে।

কিন্তু ওই সময় তাকে বর্তমান ও অফিস ঠিকানায় না পাওয়ায় দুদকের চট্টগ্রাম-২ এর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের মাধ্যমে তার গ্রামের ঠিকানায় আপন ছোটে ভাই শিমুল দেবনাথ ও একই এলাকার রনজিত নাথের কাছে তা পাঠিয়ে সম্পদের নোটিশ জারি করা হয়।

নোটিশে সাত কার্যদিবস সময় দেয়া হলে নির্ধারিত সময়ে তিনি কমিশনে তার সম্পদের বিবরণী দাখিল করেননি। এমনকি সম্পদ বিবরণী দাখিলের সময়ের জন্যও আবেদন করেননি।

নির্ধারিত সময়ে সম্পদের হিসাব কমিশনে দাখিল না করায় ননী গোপাল নাথের বিরুদ্ধে দুদকের আইনে মামলাটি দায়ের করা হয়েছে।

You Might Also Like