ন্যাটোর মোকাবেলায় বাড়তি সেনা মোতায়েন করবে রাশিয়া

রাশিয়ার সেনাবাহিনী এবং নৌবাহিনী দেশটির দক্ষিণপশ্চিমে বাড়তি সেনা এবং আধুনিক অস্ত্র মোতায়েন করবে। কৃষ্ণ সাগর তীরবর্তী অঞ্চলে ন্যাটোর উপস্থিতি জোরদারের পরিকল্পনার জবাবে এ পদক্ষেপ নেবে মস্কো।

অবশ্য গত বছরই কৃষ্ণ সাগরে দুই ক্ষেপণাস্ত্র বাহী রণতরী এবং দুই ডুবোজাহাজসহ ১৫টির বেশি রুশ যুদ্ধ জাহাজ মোতায়েন করেছে রাশিয়া। ক্ষেপণাস্ত্রবাহী রণতরী এবং ডুবোজাহাজগুলোতে রুশ অত্যাধুনিক কালিবার-এনকে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন রয়েছে। এ সব ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে তিন হাজার কিলোমিটার দূরবর্তী লক্ষ্যবস্তুতে নির্ভুল ভাবে আঘাত হানা যায়।

সিরিয়ায় সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আঘাত হেনে এ সব ক্ষেপণাস্ত্রের কার্যকারিতা প্রমাণিত হয়েছে। এ এলাকায় রুশ যে যুদ্ধ বিমান মোতায়েন রয়েছে তা দিয়ে সমগ্র কৃষ্ণ সাগর তীরবর্তী অঞ্চল নিয়ন্ত্রণ করা যাবে।

এ ছাড়া, কৃষ্ণ সাগরের তীরবর্তী এলাকায় মোতায়েন রুশ নতুন বাহিনী এবং অস্ত্র ও সামরিক অবকাঠামো পরীক্ষা করা হবে। ককেশাস-২০১৬ নামের সেনা মহড়ার মাধ্যমে এ পরীক্ষা চালানো হবে। এ মহড়া চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। ককেশাস পার্বত্য এলাকা এবং কৃষ্ণ সাগর তীরবর্তী এলাকায় মোতায়েন রুশ নানা বাহিনী এ মহড়ার অংশ নিবে।

You Might Also Like