দলীয় প্রতীকে মার্চে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন

দলীয় প্রতীকে মার্চে সাড়ে চার হাজার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন করবে নির্বাচন কমিশন। পৌরসভার মত এ নির্বাচনেও এমপিদের প্রচারে না যাওয়ার বিধান রেখে বিধিমালা করেছে ইসি। আদালত যদি প্রার্থিতা ফিরিয়ে দিতে ঢালাওভাবে আদেশ দেন, তাকে বড় বাধা হিসেবে দেখছে নির্বাচন কমিশন।

দলীয় প্রতীকে এবার নির্বাচনী ডামাডোল সাড়ে ৪ হাজার ইউনিয়ন পরিষদে। মার্চে ভোটের প্রস্তুতি নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন। প্রায় ৪২ লাখ নতুন ভোটারকে মূল ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেই ইউপি নির্বাচন করবে ইসি।

পৌর নির্বাচনের মতো এবারও থাকছে না এমপিদের প্রচারে যাওয়ার সুযোগ।

নির্বাচন কমিশনের সচিব মো. সিরাজুল ইসলাম বলেন, আমরা একটি খসড়া প্রস্তুত করেছি। এটি নিয়োগ কমিশনের বিবেচনার জন্য আছে। নিয়োগ কমিশন এটি অনুমোদন করে দিলে আমরা আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠাবো ভেটিং এর জন্য। তারপরে এটি চূড়ান্ত হবে।

তবে দলীয় প্রতীকে পৌরসভা নির্বাচনের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে কয়েক ধাপে ইউপি নির্বাচনকে চ্যালেঞ্জ মনে করছে না নির্বাচন কমিশন। তবে প্রার্থিতা ফিরিয়ে দিতে আদালত ঢালাওভাবে আদেশ দিলে তা বড় বাধা হয়ে ওঠার আশঙ্কা তাদের।

সিরাজুল ইসলাম বলেন, একটি নির্দিষ্ট সংখ্যার মধ্যে যদি আমি সীমাবদ্ধ না থাকি তাহলে এই চ্যালঞ্জটি মোকাবেলা করা কমিশনের জন্য বেশ দুরহ হয়ে যাবে।

মার্চে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের স্বার্থে আইন মন্ত্রণালয়কে দ্রুত বিধিমালা চূড়ান্ত করার আহ্বান জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। সূত্র : চ্যানেল আই

You Might Also Like