পাঠানকোট বিমানঘাঁটিতে হামলা করেছে ভারতেরই গেরিলারা: ইউজেসি

ভারতের পাঠানকোট বিমানঘাঁটিতে সাম্প্রতিক হামলা চালিয়েছে ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরেেরই গেরিলা গোষ্ঠীগুলো। এ ছাড়া, এ কাজে তাদেরকে সহযোগিতা করেছেন ভারতের হিন্দু, শিখ এবং মুসলমান কর্মকর্তারা। এ দাবি করেছেন কাশ্মিরের ১২টিরও বেশি গেরিলা গোষ্ঠী নিয়ে গঠিত জোট ইউনাইটেড জিহাদ কাউন্সিল বা ইউজেসি’র মহাসচিব শেখ জামালুর রহমান। তিনি পাকিস্তানের ইংরেজি দৈনিক ডনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ দাবি করেন।

ইউজেসি’তে পাকিস্তানের নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি গোষ্ঠী জেইশে মোহাম্মদ এবং লশকরে তৈয়্যবা পর্যবেক্ষক হিসেবে আছে বলে জানান তিনি। জেইশে মোহাম্মদ পাঠানকোটের হামলায় জড়িত বলে কোনো কোনো মহল যে দাবি করেছে তা নাকচ করে দেন জামালুর রহমান। ২০০১ সালে ভারতীয় সংসদে হামলার সঙ্গে জেইশে মোহাম্মদ জড়িত ছিল বলে দাবি করা হয়।

জামালুর রহমান বলেন, জোটভুক্ত গেরিলা গোষ্ঠীগুলোর সদস্যরা পাঠানকোট বিমানঘাঁটির হামলায় জড়িত ছিল। তিনি দাবি করেন, হামলায় জড়িত সবাই ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু ও কাশ্মিরের অধিবাসী এবং তাদের সহায়তা করেছে হিন্দু, শিখ এবং মুসলমান কর্মকর্তারা।

তিনি আরো জানান, হামলায় জড়িত সবাই ভারতের ন্যাশনাল হাইওয়ের কাছাকাছি এলাকায় থাকে বলে এ দলকে ‘ন্যাশনাল হাইওয়ে স্কোয়াড’ নামে অভিহিত করা হয়েছে।

এ ছাড়া, কাশ্মিরি গেরিলাদের আচরণ বিধি মেনেই এ হামলা হয়েছে উল্লেখ করে তিনি তার ভাষায় বলেন, গেরিলারা বেসামরিক কোনো লক্ষ্যবস্তুতে হামলা করে নি। ভারতীয় সেনারা কাশ্মিরিদের হত্যা করছে কাজেই ভারতীয় সেনাদেরকে যেখানেই পাওয়া যাবে সেখানেই হত্যা করা হবে।

তিনি আরো বলেন, পাক-ভারত শান্তি প্রক্রিয়া কাশ্মিরিদেরকে গণহত্যার হাত থেকে রক্ষা করেনি; তাই এর তোয়াক্কা কাশ্মিরিরা করে না।

You Might Also Like