নড়াইলে কেন্দ্র দখল নিয়ে কাউন্সিলর প্রার্থী গুলিবিদ্ধ

জেলার কালিয়া উপজেলায় ভোটকেন্দ্র দখলকে কেন্দ্র করে গোলাগুলির ঘটনায় এক কাউন্সিলর প্রার্থী গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। একই সঙ্গে দুটি কেন্দ্রে ভোট স্থগিত ও এক যুবককে ছয় মাসের সাজা দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগে বিএনপির প্রার্থী এক কেন্দ্রের ভোট বর্জন করেছেন। আজ সকাল ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

সরেজমিন দেখা যায়, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে পূর্ব কালিয়া মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র দখল করে নৌকা প্রতীকের কর্মী-সমর্থকরা জাল ভোট দিতে থাকে। পরে রিটার্নিং অফিসার ও ম্যাজিস্ট্রেট আসার পর বন্ধ হয়। এ সময় ভোট কাটার সময় নৌকা প্রতীকের সমর্থক মোতাসেফ বিল্লাহকে ছয় মাসের সাজা দিয়েছেন সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হারুন আর রশিদ। এ ঘটনার পর থেকে ওই কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বন্ধ রয়েছে। ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে ওই কেন্দ্রে ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপির প্রার্থী এস এম ওয়াহিদুজ্জামান মিলু।

এদিকে সকাল ১০টার দিকে কালিয়া পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকের কর্মী-সমর্থকরা ভোট কাটতে যায়। সেখানে কাউন্সিলর প্রার্থীরা বাধা দিলে গুলির ঘটনা ঘটে। এ সময় কাউন্সিলর প্রার্থী ফসিয়ার রহমান গুলিবিদ্ধ হলে কালিয়া উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। পরে ওই কেন্দ্রটিতেও ভোটগ্রহণ স্থগিত ঘোষণা করা হয়।

বর্তমানে কালিয়া উপজেলায় চরম উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় কাটাচ্ছেন ভোটাররা।

You Might Also Like